প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বগুড়ায় বিষাক্ত মদ পানে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু, আশংকাজনক-১

রফিক, বগুড়া থেকে : বগুড়ায় হঠাৎ করে বেড়ে গেছে মদ বিক্রির ঘটনা । ফলে যত্রতত্রই চলছে মদের আসর । হাত বাড়ালেই মিলছে লিকুইড ওয়াইন অর্থাৎ বাংলা মদ। এ ছাড়াও অবাধে মিলছে ভারতীয় মদের পাশাপাশি মিলছে বিভিন্ন মদ। ইতমধ্যই বিষাক্ত মদ পানে মারা গেছে রনজিৎ (২০)নামের এক কলেজ ছাত্র । মৃত্যুর সাথে পাঞ্চা লড়ছে তুষার নামের এক যুবক ।

নিহত রনজিৎ শহরের শিববাটি এলাকার জয়নারায়ন এর ছেলে এবং বগুড়া করনেশন স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করার পর অনার্স এ ভর্তি প্রস্তুতি নিয়েছিল। অন্যদিকে তুষার একই এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে । এদিকে বিষাক্ত মদ পানে কলেজ ছাত্র রনজিতের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে শহরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। তার মৃত্যুর সাথে জড়িতদের অবিলম্বে আটক এবং শহরে মাদক বন্ধের দাবীতে মানব বন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে নাগরিক সমাজ ।

জানা গেছে , গত বৃহস্পতিবার রাতে রনজিৎ সহ অন্যরা মদ পান করার পর অসুস্থ হয়ে পড়ে। এতে স্থানীয় ভাবে তাকে চিকিৎসা দেয়া হলে তার কোন উন্নতি না হওয়ায় শনিবার তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । পরে রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় । হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তুষারের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

এদিকে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে , গত কয়েকদিন যাবৎ শহরের বিভিন্ন স্থানে মদ পান করে বেশ কয়েকজন অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাদের গোপনে চিকিৎসা দেয়া হয় সম্প্রতিকালে  আইনশৃংখলা বাহিনীর কঠোর মাদক বিরোধী অভিযানে ইয়াবা, হেরোইন বিক্রি ও সেবন কারীদের সংখ্যা আশানূরুপ ভাবে কমে গেলেও শহর ও এর আশ পাশের এলাকায় তৎপর হয় মদ ব্যবসায়ী চক্র । এত করে তারা বেশী মুনাফার লোভে দেশীয় মদের সাথে বিষাক্ত র‌্যাকটিফায়েড ¯্রটি মিশিয়ে বিক্রির করা শুরু করে। এদিকে দেশীয় মদে বিষাক্ত রেক্টিফায়েড মি¯্রন করে বিক্রির ফলে আশংকাজনক ভাবে বেড়ে গেছে মৃত্যুঝুকি।

এসব পয়েন্টের মধ্যে শহরের ১নং রেল ঘুমটি, হোটেল গলি, রেলওয়ে কলোনী, শেউজগাড়ী রেলওয়ে কলোনী, শিববাটি সুইপার কলোনী এলাকা, বিতর্কিত চকসুত্রাপুর সুইপার কলোনী এলাকা, চেলোপাড়া, মধ্য চেলোপাড়া, চারমাথা বাস ট্রার্মিন্যাল এলাকা, কলোনী শহরের বঊবাজার, সাবগ্রাম , মাটিডালী এলাকা সহ আরো কমপক্ষে ৬টি ষ্পটে স্থায়ী এবং অস্থায়ী ভাবে মদ বিক্রির আসর চলছে রমরমা ভাবে ।

অভিযোগ রয়েছে , ইয়াবা হেরোইন এর দৌরাত্ম্য কমাতে মাদক বিরোধী অভিযানে আইন শৃংখলা বাহিনীর ভূমিকা প্রশংসনিয় হলেও মদ বিক্রির ব্যাপারে বাহিনীর ভূমিকা আশানুরুপ নয় । কারন হিসাবে উল্লেখ করা যেতে পারে , অধিকাংশ স্থানীয় ফাঁড়ী মদ বিক্রির সুনিদিষ্ঠগুলি স্থানগুলি চিহ্নিত করলেও মদ বিক্রি রোধে তাদের ভূমিকা কঠোরতর না হওয়ায় মদ বিক্রি বেড়েছে বহু গুনে।

এদিকে বগুড়া সদর থানা পুলিশের এক অভিযানে শনিবার রাতে শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে পদপ্য অবস্থায় এ ব্যাংক কর্মকতা বাস চালক সহ কমপক্ষে ১০জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্য অধিকাংশই কলেজ ছাত্র । আটক ব্যাংক কর্মকর্তা তুষার স্থানীয় ব্রাক ব্যাংকের সহকারী ব্যবস্থাপক বলে জানা গেছে । তার বাড়ী শহরের ঠনঠনিয়া এলাকায় ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ