প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাকিব-তামিমকে ছাড়াই জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে দুপুরে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

এল আর বাদল : বাংলাদেশ ক্রিকেটের নির্ভরতার প্রতীক সাকিব আল হাসান আর তামিম ইকবাল ছাড়াই মাশরাফির দল যে যুদ্ধে অংশ নিয়ে প্রশংসা কুড়াতে পারে, তার একটি জলন্ত উদাহরণ রেখে আসছে ক্রিকেট বিশ্বের পরাশক্তি ভারতের বিরুদ্ধে এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলে। সুতরাং জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সাকিব-তামিম ছাড়া ওয়ানডে সিরিজ জেতা খুব কষ্টের হবে বলে মনে করছেন না ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার শুরু হচ্ছে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ। দিবা-রাত্রির এই ম্যাচ শুরু হবে বেলা আড়াইটায়। পরিসংখ্যান বিশ্লেষণে এই ম্যাচটি হবে দুই দেশের মধ্যকার ৭০তম ওয়ানডে ম্যাচ। ২২ বছর আগে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে প্রথম সাক্ষাতেই কিন্তু ধাক্কা খেয়েছিলো বাংলাদেশ। ওই ম্যাচ টাইগাররা হেরেছিলো ৪৮ রানের বড় ব্যবধানে। এই ২২ বছরে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের ক্রিকেটীয় ইতিহাস অনেক বদলেছে। তাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ যে ৬৯টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে তার মধ্যে ৪১টি ম্যাচ জিতেছে লাল-সবুজের দেশ। বাকি ম্যাচগুলো জিতেছে জিম্বাবুয়ে।

১৯৯৭ সালে প্রথমবারের মতো জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। ওই ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছিল ৪৮ রানে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ১০টি ওয়য়ানডে ম্যাচে হারে বাংলাদেশ। ১১ ও ১২তম ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল। ১৩তম ম্যাচে জয় পেয়েছিল টাইগাররা। ২০০৪ সালে হারারেতে অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচে বাংলাদেশ জয় পেয়েছিল ৮ রানে।

এই একটি ম্যাচে জয় পাওয়ার পর টানা চার ম্যাচে হারে বাংলাদেশ। কিন্তু পরে টানা তিনটি জয় পায় টাইগাররা। এরপর থেকে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে আধিপত্য বিস্তার করে একের পর এক সাফল্য পেতে থাকে টাইগার সেনারা। জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ওয়ানডেতে সর্বশেষ দশ ম্যাচের দশটিতেই জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ২০১৪ সালে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ও ২০১৫ সালে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়েকে বাংলাদেশ হোয়াইটওয়াশ করে। আর গত জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুটি ম্যাচ খেলে দুইটিতেই বাংলাদেশ জয় পায়।

দুই দলের পরিসংখ্যান যাই বলুক, আজকের ম্যাচ নিয়ে কিন্তু দলনায়ক মাশরাফিকে ভাবতে হচ্ছে। জিম্বাবুয়েকে কোনোভাবেই হাল্কা করে দেখছেন না। সাকিব-তামিমের অনুপস্থিতিতে লড়াই করার সামর্থ্য থাকলেও জিম্বাবুয়ের এই দলটি অনেক শক্তিশালী বলে মনে করেন মাশরাফি। জয়ের জন্য সবাই সেরাটা উজার করে খেলবে বলেও জানালেন তিনি।

ওদিকে জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক হেমিলটন মাসাকাদজা টাইগারদের বিরুদ্ধে টান টান উত্তেজনার আভাস দিলেন। বললেন, অনেক হেরেছি আর হারতে চাই না। আমাদের নিয়মিত খেলোয়াড় সিকান্দার রাজা কেন্দ্রিয় চুক্তির বাইরে ছিলেন অনেক দিন। এবার দলে ফিরেছেন। আমাদের দল এখন অনেক শক্তিশালী। প্রথম ম্যাচ জিতেই শক্তির পরিচয় দেবো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত