প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্যারিসে লুভ্যর যাদুঘরে অর্ধেক নিদর্শনই ইসলামি

রাশিদ রিয়াজ: ফ্রান্সের বিখ্যাত যাদুঘর লুভ্যর যাদুঘরে মোট নির্দর্শন রয়েছে ৩০ হাজার। এর মধ্যে সাড়ে ১৭ হাজার নিদর্শনই ইসলামি। সেদিক থেকে লুভ্যর যাদুঘরেই বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ইসলামি নিদর্শন রয়েছে। যাদুঘরটির ইসলামি সংস্কৃতির সংগ্রহশালা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সমৃদ্ধ। আনাদোলু/আল-হুরিয়াত

গত বছর লুভ্যর যাদুঘর পরিদর্শন করেন ৮১ লাখ মানুষ। এদের মধ্যে বেশিরভাগই বিদেশি পর্যটক। ১২ শতকের সময় থেকে ১৯ শতকের মাঝামাঝি অনেক ইসলামি নিদর্শন এ যাদুঘরে দর্শকদের নজর কাড়ে যার মধ্যে ইসলামের প্রথম শতকের বিভিন্ন নিদর্শনও রয়েছে। ১৯০৫ সালে প্রথমবার লুভ্যর যাদুঘরে ইসলাম নিদর্শনের একটি শাখা খোলা হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ইসলামি নিদর্শনের সংখ্যা দ্রুত বাড়তে থাকে যাদুঘরটিতে। ২০০৩ সালে যাদুঘর কর্তৃপক্ষ ইসলামী নিদর্শনগুলো নিয়ে আলাদা বিভাগ খোলে এবং এটির উদ্বোধন করেন ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলান্দে। সুলতান সুলেমানের তরবারি থেকে শুরু করে প্রাচীন ইসলামী চিত্রকর্ম, নির্মাণ সৌকর্যের নিদর্শন সহ বিবিধ নিদর্শন বিভিন্ন মুসলিম দেশ থেকে সংগ্রহের পর এ যাদুঘরটিতে স্থান পেয়েছে।

সুলতান মামলুকের আমলের তৈরি নৌকা যেটি ১৩২০ থেকে ১৩৪০ সালের মধ্যে নির্মিত হয়েছিল তা দর্শকদের চিত্ত হরণ করে। আর এসব নিদর্শনের অনেকগুলো ফ্রান্সের ইতিহাস ও সংস্কৃতির অংশও বটে। ফ্রান্সে সন্ত্রাসী হামলার পর লুভ্যর যাদুঘরে এই ইসলামি নিদর্শনের শাখায় দর্শকদের আগমন কমে যায়। তবে যারা এখানে আসেন তারা ইসলাম সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণা নিয়েই ফেরেন। এ বিভাগটির পরিচালক লিন্ৎজ বলেন, ইসলাম ও এর সংস্কৃতি সম্পর্কে এক সমৃদ্ধ ধারণা পান দর্শকরা এখানে এলে। ৯৬৮ এডি’তে হাতির দাঁতের তৈরি একটি গহনার বাক্স দেখে অনেক দর্শক বিমোহিত হয়ে পড়েন। অটোমান সুলতান সেলিম দ্বিতীয়’র তৈরি একটি গম্বুজ নিয়ে ফ্রান্স ও তুরস্কের মধ্যে আলোচনা চলছে। কারণ লুভ্যর যাদুঘরে সংরক্ষিত এ নিদর্শনটির মালিকানা দীর্ঘদিন ধরেই দাবি করে আসছে তুরস্ক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ