প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কখনও তিনি ডাক্তার, কখনও নায়িকা!

বাংলা ট্রিবিউন : কখনও ডাক্তার, কখনও আবার নায়িকা পরিচয়ে তিনি ঘুরে বেড়াতেন রাজধানীর বিভিন্ন অভিজাত এলাকায়। আর এসবের ফাঁকে টার্গেট করতেন টাকা-পয়সাওয়ালাদের। তাদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ার মাধ্যমে বাসায় প্রবেশের সুযোগ নিতেন। আর বাসায় প্রবেশ করতে পারলেই কেল্লাফতে। ওই বাসা থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যেতেন। এমনটাই অভিযোগ রয়েছে সাবিয়া সানি ওরফে সাবিয়া ওরফে তানিয়া (২৬) নামের এক নারীর বিরুদ্ধে। অবশেষে উত্তরা থেকে তেজগাঁও থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।

তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম সাবিয়া সানি ওরফে সাবিয়া ওরফে তানিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, প্রবাসী ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে প্রতারণা করে অর্থ আত্মসাৎ ও চুরির অপরাধে তাকে রাজধানীর উত্তরা ১৩নং সেক্টর থেকে গ্রেফতার করা হয়। তার নামে রাজধানীর বেশ কয়েকটি থানায় চুরি ও প্রতারণার মামলা রয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

তেজগাঁও থানা পুলিশ জানিয়েছে- তানিয়া প্রবাসী ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বিভিন্ন সময় সখ্যতা গড়ে তুলতে নিজেকে কখনও ডাক্তার, আবার কখনও নায়িকা হিসেবে পরিচয় দিতেন। দীর্ঘদিন পরিচয়ের সূত্রে বিশ্বস্ততা অর্জনের পর প্রবাসী ও ব্যবসায়ীদের বাসায় যাওয়ার ব্যবস্থা করতেন। পরে বাসায় গিয়ে কৌশলে টাকাসহ অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যেতেন।

গত ২৯ জুলাই ২০১৮ তারিখে তেজগাঁও থানায় তার বিরুদ্ধে এমন ঘটনায় একটি অভিযোগ করা হয়। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে ১৯ অক্টোবর ভোর ৬টায় উত্তরা ১৩নং সেক্টর থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

প্রতারণা ও চুরির অভিযোগে তানিয়ার বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানা ছাড়াও রাজধানীর মোহাম্মদপুর ও কাফরুল থানায় মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে তেজগাঁও থানা পুলিশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ