প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বব্যাপী উপন্যাস প্রকাশের শীর্ষ তালিকা

পায়েল মণ্ডল: বিশ্বব্যাপি ৩৫০ মিলিয়ন কপির বেস্টসেলার লেখক স্টেফান কিং তার স্মৃতিকথায় বলেছিলেন, ব্রিটিশ ক্রাইম থ্রিলার লেখক জন ক্রিজির কাছে তিনি নস্যি; কারণ ক্রিজি নামে বেনামে পাঁচশর বেশি উপন্যাস লিখেছেন আর তিনি লিখেছেন মাত্র ৫৯টি উপন্যাস ও ২০০ গল্প। তিনি বলেন, অনেক স্বনামধন্য লেখকেরা সর্বসাকূল্যে মাত্র পাঁচ-ছয়টা বই লিখেছেন তাদের লেখক জীবনে। তিনি বিস্মিত হন এই ভেবে এই সব লেখকদের জীবনের বাকি সময় কি করে কেটেছে।

বিশ্বের অনেক লেখকই অবিশ্বাস্য সংখ্যার বই লিখে গেছেন নামে বেনামে। আমরা দেখে নেই কারা এই তালিকায় শীর্ষ তালিকায় আছেন।

১. স্প্যানিশ লেখক করিন টেলাডো ১৯৭২ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত মোট ৪০০০ উপন্যাস প্রকাশ করেছেন। বিশ্বব্যাপি তার উপন্যাস ৪০০ মিলিয়ন কপি বিক্রি হয়েছে। তিনি রোমান্টিক উপন্যাস লিখেছেন।

২. ব্রাজিলিয়ান লেখক রিয়োকি ঈনোয়ি যিনি পেশায় একজন সার্জন ১১০০টি ফিকশন লিখেছেন।

৩. ক্যাথলিন লিন্ডসে মূলত রোমান্টিক উপন্যাস লেখক। ইংরেজ এই লেখক ১৯৭৩টি উপন্যাস প্রকাশ করেছেন।

৪. লরেন বোসোয়ার্থ পেইন একজন আমেরিকান ওয়েসস্টার্ন থ্রিলার লেখক। তিনি ৮৫০ টি ওয়েস্টার্ন থ্রিলার লিখেছেন।

৫. এনিড মেরী ব্লাইটন, ইংরেজ শিশুতোষ গল্প লিখিয়ে যিনি ৮০০টি বই লিখে গেছেন সবগুলো শিশুদের জন্য।

৬. বারবারা কার্টল্যান্ড, ইংরেজ লেখিকা, ৯৯ বছরের জীবদ্দশায় ৭২৩টি উপন্যাস লিখে গেছেন। তিনি মূলত ঐতিহাসিক ঘটনা নিয়ে উপন্যাস লিখেছেন।

৭. জোসেফ ঈগন্যান্সি ক্রাসোয়েস্কি , পোলিশ লেখক, ৬০০ উপন্যাস লিখেছেন।

৮. প্রেন্টিস ক্রেয়াসি, পেশায় একজন আমেরিকান কনভেডারেট আর্মি , লিখেছেন ৬০০ উপন্যাস।

৯. জন ক্রিজি ইংরেজ ক্রাইম থ্রিলার লেখক ৭৬৮টি উপন্যাস লিখেছেন।

১০. মিশরের ধর্মীয় গুরু জালালুদ্দিন আল সুয়োতি ৫৫০টি গ্রন্থ রচনা করেছেন।

১১. বেলজিয়ান লেখন জর্জ জোসেফ ক্রিশ্চিয়ান সিমন ৫০০ উপন্যাস লিখেছেন।

১২. ইংরেজ লেখক হ্যারোল্ড ব্লুম ৫২০টি উপন্যাস প্রকাশ করেছেন।

১৩. আমেরিকান লেখক হাওয়ার্ড রজার গ্যারিস প্রকাশ করেন ৫০০টি উপন্যাস।

১৪. জাপানিজ লেখক প্রকাশ করেন ৫০০টি উপন্যাস।

১৫. আমেরিকান সাইফাই লেখক আইজ্যাক ওসিমোভ প্রকাশ করেন ৪৬৮ উপন্যাস।

১৬. আমেরিকান লেখক রবার্ট লরেন্স স্টাইন ৪৫০টি উপন্যাস প্রকাশ করেছেন।

১৭. আমেরিকান লেখক এডোয়ার্ড স্টার্ট্মেয়ার প্রকাশ করেছেন ৪০০টি উপন্যাস। ফেসবুক থেকে।

সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ