প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৪৬৪ মিনিট পর প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠালো রিয়াল মাদ্রিদ!

স্পোর্টস ডেস্ক : শনিবার নিজেদের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাবুতে লেভান্তের কাছে ২-১ গোলে হেরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। রিয়াল মাদ্রিদ শেষ ৫ ম্যাচে জয়ের মুখ দেখেনি। সেই সঙ্গে ৩৩ বছরের পুরনো লজ্জার রেকর্ডও ভেঙে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের ৫৫ মিনিটে হয়ে গেলে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে লম্বা সময় গোল খরার রেকর্ডে নাম লেখায় রিয়াল মাদ্রিদ। ৪৬৪ মিনিট রিয়াল গোলশূন্য!

শেষ চার ম্যাচের তিনটিতেই হার দেখতে হয়েছে মাদ্রিদকে। এমন খারাপ অবস্থার মাঝেই ম্যাচের ১৩ মিনিটেই দুই গোল হজম করে রিয়াল। ম্যাচের ৬ মিনিটের মাথায় পেছন থেকে বাড়ানো দুর্দান্ত এক পাস থেকে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার হোসে লুইস মোরালেস গোল করে লেভান্তেকে এগিয়ে দেন।

প্রথম গোল হজমের পর মাদ্রিদ কিছুটা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও ৭ মিনিটের মাথায় আবারও গোল হজম করে। ডি-বক্সে রাফায়েল ভারানের হাতে লাগা বল রেফারির চোখ এড়িয়ে গেলেও ভিডিও অ্যাসিসটেন্ট রেফারি (ভিএআর) প্রযুক্তিকে ফাঁকি দিতে পারেনি। ভিএআরের সাহায্যে লেভান্তের পক্ষে পেনাল্টির ঘোষণা দেয় রেফারি। সেখান থেকে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড রজের মার্তি।

দুই গোল হজমের পর একের পর এক আক্রমণ চালাতে থাকে রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু ভাগ্য সহায় ছিল না রিয়ালের আজ। একের এক সুযোগ নষ্ট হতে থাকে রিয়ালের। মার্কো এসেন্সিওর একটি গোল ভিএআরের সাহায্যে বাতিল করা হয়। এছাড়া রিয়ালের বেশ কয়েকটি সুযোগ নষ্ট হয় লেভান্তের গোলকিপার ওলাসাবালের কারণে। তাঁর দুর্দান্ত গোলকিপিংয়ের কারণেই রিয়াল জয় বঞ্চিত হয়।

দ্বিতীয়ার্ধে করীম বেঞ্জেমা ও বেলকে নামিয়ে রিয়াল আক্রমণের ধার বৃদ্ধি করে। তবে রিয়ালকে ব্যবধান কমাতে অপেক্ষা করতে হয়ে ম্যাচের ৭২ মিনিট পর্যন্ত। ডিবক্সের ভেতর থেকে বেঞ্জেমার এক পাস থেকে জোরালো শটে গোল করেন মার্সেলো। ৫ মিনিট পর বেঞ্জেমার নেওয়া শটটি গোলপোস্টে বাঁধা পেয়ে ফিরে এলে আবারও গোল বঞ্চিত হয় মাদ্রিদ।

ম্যাচের একদম অন্তিম মুহূর্তে মারিয়ানোর গোলে ক্ষণিকের উল্লাসে ফেটে পড়ে মাদ্রিদের স্টেডিয়াম। কিন্তু অফসাইডের কারণে গোলটি বাতিল হলে আরেকটি হতাশা নিয়েই মাঠ ছাড়ে রিয়াল মাদ্রিদ। বাংলা ইনসাইডার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ