প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিধির মাধ্যমে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপপ্রয়োগ রোধ সম্ভব: মুস্তাফা জব্বার

রিয়াজ হোসেন: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই। সুনির্দিষ্ট বিধি প্রণয়নের মাধ্যমে ‘এর’ অপপ্রয়োগ রোধ করা সম্ভব বলে মনে করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রী মুস্তাফা জব্বার।

শনিবার জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিঠি আয়োজিত ‘নির্বাচনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ভূমিকা’ শীর্ষক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন ।

মন্ত্রী বলেন, সাংবাদিকরা সবার জন্য এই আইন চাইলেও নিজেদের জন্য চায় না। কিন্তু সংবিধান অনুযায়ি দেশের সকল নাগরিক সমান। যদি সাংবাদিকদের ছাড় দেওয়া হয় তবে (সেটা) সংবিধান লঙ্ঘন করা হবে। যদিও এখন তারা এই আইনের বিরোধীতা করছে কিন্তু কয়েক বছর পরে তারাই ‘এটাকে’ আরো শক্তিশার্লি করার কথা বলবেন। কারণ এই আইন আরো কঠিন না হলে বেডরুম নিরাপদ থাকবে না। সান্তানের ব্যাক্তিগত জীবন নিরাপদ থাকবে না, ব্যাংকের টাকা নিরাপদ থাকবে না।

ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেন, জামায়াতে ইসলামীর বিবেচনায় যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করতে চান তারা নাস্তিক। তাই যতদিন পর্যন্ত এদেরকে নিষিদ্ধ না করা হবে ততদিনে পর্যন্ত মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র চলতেই থাকবে। এ সময় তিনি যুদ্ধাপরাদের দায়ে যারা চিহ্নিত হয়েছে তাদের সন্তানরা যেন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না পারে তার জন্য সরকারে প্রতি আহবান জানান।

সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আরাফাত বলেন, ২০১১ তে একটা আইন করা হয়েছিল। সেখানে বলা হয়েছিলো, কেউ যদি জনস্বার্থে গোপন কোনো তথ্য প্রকাশ করেন তাহলে আইন আপনাকে নিরাপত্তা দিবে। সুতরাং অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে কোনো সমস্যা থাকছে না।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নির্মূল কমিটির সহ-সম্পাদক ডা. নুজহাত চৌধুরী, বøগার ও লেখক মারুফ রসুল, বাংলাদেশ অনলাইন ফোরামের সভাপতি কবীর চৌধুরী প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত