প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জাতীয় নির্বাচনে আগ্রহীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের পদ ছাড়তে হবে

তরিকুল ইসলাম সুমন : সংসদ নির্বাচনের অংশ নেওয়ার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের পদ ছাড়তে হবে। এক্ষেত্রে মনোনিত ব্যক্তিরাও এসব পদে থাকতে পারবেন না। নির্বাচনের সময় দলের পদধারীরাও পারবেন না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের পদে থাকতে। একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগেই তাদের পদত্যাগ করতে হবে। এমনই আচরণবিধি সংযুক্তের সুপারিশ করেছে নির্বাচন কমিশনের আইন সংস্কার কমিটি। নির্বাচন কমিশন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। আজ নির্বাচন কমিশন সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

কমিশন সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, বিদ্যমান আচরণ বিধিমালার বিধি ১৪ এর উপবিধি ৪ সংশোধনের সুপারিশ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, কোনো প্রার্থী বা প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী কোনো নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সাংগঠনিক কমিটির সদস্য/নেতা/কর্মী, কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদে আগে সভাপতি বা সদস্য হিসেবে নির্বাচিত বা মনোনীত হয়ে থাকলে বা কোনও মনোনয়ন পেয়ে থাকলে নির্বাচনের আগে তিনি ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদে থাকতে পারবেন না।

এই সংশোধনী প্রস্তাবের যৌক্তিকতায় সংস্কার কমিটি বলেছে- ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের অধিকাংশই বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী। রাজনৈতিক দলের নেতারা সভাপতি বা সদস্য হিসেবে বহাল থাকলে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তার ওপর প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে প্রভাব বিস্তার রোধের জন্য এই সুপারিশ করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ