প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মানসিক রোগীরাই মেসির প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ করে: কেম্পেস

স্পোর্টস ডেস্ক: কেম্পেস, ম্যারাডোনা ও মেসি তিনজনই আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপে তুলেছেন। কিন্তু কেম্পেস, ম্যারাডোনা বিশ্বকাপ জিতলেও বিশ্বকাপ জিততে পারেননি লিওনেল মেসি। ২০১৪ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে অতিরিক্ত সময়ের গোলে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। চ্যাম্পিয়ন হয় জার্মানি। ২০১৪ সালে ফাইনাল খেললেও এবারের বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নেয় আর্জেন্টিনা।

রাশিয়া বিশ্বকাপের পর জাতীয় দল থেকে নিজেকে কিছু দিনের জন্য সরিয়ে রেখেছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। বিষয়টি নিয়ে অনেকে সমালোচনা করছেন। আবার ১৯৮৬ সালে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক ও কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়েগো ম্যারাডোনা মেসির অধিনায়কত্ব ও প্রতিভা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি বলেছেন, ‘ম্যাচ শুরুর আগে মেসি ২০ বার বাথরুমে যায়।’

দিয়োগো ম্যারাডোনার এসব সমালোচনার জবাব দিয়েছেন আর্জেন্টিনার ১৯৭৮ সালের বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক মারিও কেম্পেস। তিনি বলেছেন, ‘মানসিক রোগীরাই মেসির মেধা নিয়ে সন্দেহ করে, প্রশ্ন তোলে। এখন জাতীয় দল থেকে মেসির কিছুদিনের জন্য বিশ্রাম নেয়া প্রয়োজন। মেসির পক্ষে একাই ম্যাচ জেতানো সম্ভব না।’

মারিও কেম্পেস বলেছেন, ‘আমরা সবাই জানি যে, মেসি একাই ম্যাচ জেতাতে পারে না। উদ্ভট চিন্তার মানুষ বা মানসিক রোগীরা ছাড়া মেসির মেধা নিয়ে সন্দেহ করতে পারে না। এরাই বলে মেসি আর্জেন্টিনার জন্য কিছু ভাবে না, জাতীয় সঙ্গীত গায় না, ম্যাচের আগে ৫০ বার বাথরুমে যায়।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রতিবারই ম্যারাডোনা এমন কথা বলেন যাতে প্রত্যেকের জীবন কঠিন হয়ে যায়। আমি মনে করি এখন আমাদের নতুন যুগের সূচনা করা দরকার। তাকে ডোরাবোসের কোচের দায়িত্ব পালন করতে দিন।’

বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর সম্প্রতি ব্রাজিলের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে ০-১ গোলে হারে আর্জেন্টিনা। আগামী মাসে মেক্সিকোর বিপক্ষে দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ রয়েছে আর্জেন্টিনার। অনেকেই মনে করছেন, মেসি না থাকায় ব্রাজিলের বিপক্ষে আর্জেন্টিনা হেরেছে এবং সামনেও ভালো করার সম্ভাবনা নেই। কিন্তু মারিও কেম্পেস ভাবছেন, মেসি না থাকলেও ভালো পারফরম্যান্স করবে আর্জেন্টিনা।
মারিও কেম্পেস বলেছেন, ‘আর্জেন্টিনা খারাপ খেলেনি। আমাদের শান্ত হতে হবে। আর্জেন্টিনা নতুন যুগ শুরু করেছে। দলে এখন কোনো সংকট নেই।’

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি সবকিছু মিলিয়ে দল উন্নতি করেছে। দল ঢেলে সাজানো হয়েছে। মেসি দলে নেই। আমি মনে করি, দলের জন্য এটি ভালো দিক। মানসিকভাবে চাঙ্গা হতে তাকে জাতীয় দল থেকে কিছুদিন বিরতি দেয়া হয়েছে। আমি মনে করি এটি দরকার ছিল।’

সম্প্রতি মেসিকে নিয়ে সমালোচনা করে দিয়োগ ম্যারাডোনা বলেন, জাতীয় দলের অধিনায়ক হতে হলে যে গুণগুলো থাকা দরকার তার অনেক কিছুই মেসির মধ্যে নেই। মেসি নীরব। কম কথা বলে। এর কারণেই অধিনায়ক হিসাবে সে ব্যর্থ।
মেসিকে নিয়ে ম্যারাডোনার এই সমালোচনার জবাব দেন স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার ডিরেক্টর অব ফুটবল আবিদাল। তিনি বলেন, ‘অধিনায়ক হিসাবে সে উদাহরণ। শুধু মেধার ভিত্তিতে বলব না সে মানুষ হিসাবেও উদাহরণ। সে বেশি কথা বলে না। কিন্তু মাঠে সে আমাদের সব দেখিয়ে দেয়। সে আমাদের মূল খেলোয়াড়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ