প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌম্য-এবাদতের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ প্রধান নির্বাচক

ক্রিকফ্রেঞ্জি : একাই জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের নাস্তানাবুদ করেছেন বিসিবি একাদশের পেসার এবাদত হোসেন। তাঁর পারফর্মেন্সে মুগ্ধ জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। পাশাপাশি সৌম্য সরকারের অসাধারণ ব্যাটিংও নজর কেড়েছে তাঁর, জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) এই কর্মকর্তা।

দুই বছর ধরে টেস্ট বোলার হিসেবে এবাদতকে গড়ছিল বিসিবির এইচপি দল। কিন্তু সীমিত ওভারের ক্রিকেটেও যথেষ্ট মান সম্মত বোলিং করেছেন তিনি। এইচপি দলের ক্রিকেটারদের এমন দুর্দান্ত পারফর্মেন্সে সন্তুষ্ট প্রধান নির্বাচক।

‘এই জয়টা আমাদের দলের আত্মবিশ্বাস অবশ্যই বাড়াবে করবে। সৌম্য অসাধারণ ব্যাটিং করেছে। এবাদতের বোলিংও দুর্দান্ত ছিল। যথেষ্ট ভাল বল করেছে। ওকে আমরা এইচপিতে গত দুই বছর ধরে গড়ছিলাম। অনেক দিন পর ওকে ওয়ানডেতে নেয়া হয়েছে। আমরা ওকে লঙ্গার ভার্সনের অন্য রেডি করছিলাম। তো ওভারঅল দেখে যথেষ্ট ভাল লেগেছে যে আমাদের এইচপির প্লেয়াররা যথেষ্ট ভাল একটা অবস্থানে আছে।’

সাভারের বিকেএসপির তিন নিম্বর মাঠে অনুষ্ঠিত শুক্রবারের এই প্রস্তুতি ম্যাচে একাই পাঁচ উইকেট শিকার করেন এবাদত। মাত্র ২.১১ ইকোনমিতে বোলিং করেছেন ৯ ওভার। তাঁর বোলিং তোপে ১৭৮ রানেই গুঁটিয়ে গিয়েছিল জিম্বাবুয়ের ইনিংস।

কিন্তু জবাবে ভাল শুরু করতে পারেনি বাংলাদেশ। দলীয় ১১ রানে প্রথম উইকেটের পর ৫২ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারিয়ে কিছুটা পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশকে আট উইকেটের সহজ জয় এনে দেন তিনে নামা বাঁহাতি ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার।

১১৪ বলে ১০২ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলছেন তিনি। যেখানে ১৩টি চার এবং একটি ছয়ের মার ছিল তাঁর। সৌম্যর এই ইনিংসে বিসিবি নির্বাচক নান্নু মনে করছেন, সৌম্য আগের তুলনায় অনেক বেশি পরিপূর্ণ। ব্যাটিংয়ের ছন্দ পেতে শুরু করেছেন তিনি। নান্নুর বিশ্বাস, ফর্ম ধরে রাখতে পারলে শীঘ্রই জাতীয় দলে ফিরে আসবেন তিনি।

‘তারপর লাঞ্চের পর সৌম্য সরকারের ব্যাটিংটা যথেষ্ট ভাল লেগেছে। আমি মনে করি ওর যেই ব্যাড প্যাচ ছিল, সেটা থেকে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে। লাস্ট এনসিএল ম্যাচটা ও যথেষ্ট ভাল খেলেছে। আমার বিশ্বাস ফর্মে ফিরে আসলে আবার অতিসত্বর টিমে ফিরে আসবে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ