Skip to main content

বিএনপি একটি সাম্প্রদায়িক দল: মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

বিল্লাল হোসেন, কালীগঞ্জ (গাজীপুর): মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেছেন, বিএনপি ধর্মকে বিভাজন করেছে। তারা জাতির জনকের পরিচয়কে কলঙ্কযুক্ত করেছে। যারা ’৭১ এদেশে নির্বিচারে মানুষ হত্যা ও মা-বোনদের নির্যাতন করেছে। সেই রাজাকারদের গাড়িতে পতাকা দিয়ে তাদেরকে মন্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছে। তারাই সেদিন বলে বেড়িয়েছিল জয় বাংলা হিন্দুদের শ্লোগান। কারণ তারা অসাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাস করে না। কেননা বিএনপি একটি সাম্প্রদায়িক দল। তিনি বৃহস্পতিবার রাতে গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে পৌর এলাকার মুনশুরপুর মনসাতলা পূজামণ্ডপ পরিচালনা কমিটি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতিতে বিএনপি সাম্প্রদায়িক শক্তির আশ্রয়দাতা ও লালনকারী। বিএনপি নেতৃত্বাধীন সাম্প্রদায়িক শক্তি চায় না ভারতের সাথে বর্তমান সরকারের সুসম্পর্ক থাকুক। এই সুসম্পর্ক যাতে নষ্ট হয়, সেজন্য তারা দেশের বিভিন্নস্থানে অশান্তির সৃষ্টি করতে পারে। উস্কানি দিতে পারে। এরা অসুর। তাই এই অশুভ শক্তিকে পরাজিত ও পরাভূত করতে হবে। মনসাতলা পূজামণ্ডপ পরিচালনা কমিটি সভাপতি পংকজ কুমার নাগ নন্দর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক দ্রুভজিৎ ঘোষের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার (পিপিএম), কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সোহাগ হোসেন, বাংলাদেশ তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক খগেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল গণি ভূইয়া, পরিমল চন্দ্র ঘোষ, আহমেদুল কবির, শাহআলম দেওয়ান, এসএম রবিন হোসেন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম সিজু, যুবলীগ নেতা বাদল হোসেন, রেজাউর রহমান আশরাফী খোকন, ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন, সাদেকুর রহমান ভূইয়া, আলী-আল-রাফু অমিতসহ উপজেলা, পৌর, ইউনিয়ন, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

অন্যান্য সংবাদ