Skip to main content

ইলিশ ধরা নিষেধাজ্ঞায় বাজারে অন্য মাছের দখল

ইলিশ ধরা নিষেধাজ্ঞায় বাজারে অন্য মাছের দখল
আমজাদ হোসেন আমু, কমলনগর (লক্ষ্মীপুর): লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মেঘনায় ইলিশে নিষেধাজ্ঞায় সব ধরণের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করা হয়।ফলে বাজারে অন্য মাছের দখল। শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) উপজেলা ঘুরে দেখা যায়, হাজিরহাট, চর লরেন্স, মতিরহাট, লুধুয়া, পাটোয়ারীহাট, জমিদারহাট, তোরাবগঞ্জসহ প্রায় মাছের বাজার দখল করে আছে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। মাছের মধ্যে কাতল, রুই, বিগেট, কারপু, সিং, কই, তেলাপিয়া, পাংগাইসসহ বহু প্রজাতির মাছের দেখা। নদীতে মাছ ধরা নিষিদ্ধ থাকায় জেলেরা মাছ শিকারে যায় না। এতে বাজারে মাছের চাহিদা কম। একারণে মাছের দাম অনেক বেশি। ক্রেতা-বিক্রেতা বাজারে পছন্দ মতো মাছ পায় না।যা পাই তা-ই ক্রয় করছে চড়া দামে। বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে মাছের বাজার ও আড়ত মাছ শূন্যে। রোববার ৭ অক্টোবর থেকে ২৮ অক্টোবর পযর্ন্ত নদীতে নিষেধাজ্ঞা চলবে। নদীতে সব ধরণের নিষেধাজ্ঞা থাকায় জেলেরা মাছ শিকার যান না। মাছ ব্যবসায়ী কাউছার, বেলাল, শহিদ বলেন, নদীতে মাছ ধরা হয় না ফলে বাজারে মাছ নেই। পুকুর, প্রজেক্ট থেকে মাছ ধরে বাজারে আনতে হয় ।বাজারে মাছের চাহিদা বেশি, সেই অনুযায়ী মাছ কম। তাই মাছের দাম বেশি। বেশি দাম দিয়ে কিনে আনতে হয়। ক্রেতা কাদের বলেন, বাজারে মাছের দাম অনেক বেশি।তারপরও কিনতে হয়। কমলনগর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুল কুদ্দুৃছ বলেন, মা ইলিশ রক্ষায় প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগ কাজ করছে। তাই নদীতে মাছ ধরা নিষিদ্ধ।একারণে প্রয়োজনীয় মাছ না থাকায় মাছ বাজার অন্য মাছের দখলে।

অন্যান্য সংবাদ