প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গণতন্ত্রহীন বাংলাদেশ, যুক্তরাজ্যের উদ্বেগ

সাইদুল ইসলাম, যুক্তরাজ্য: বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু, ও নিরপেক্ষ করার দাবি, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, মানবাধিকার পুনরুদ্ধার, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা এবং ফরমায়েশি রায় বন্ধের দাবিতে গতকাল ১৭ অক্টোবর মানবাধিকার সংগঠন ভয়েস ফর বাংলাদেশের আয়োজনে এবং বাংলাদেশী স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সহযোগিতায়, ব্রিটিশ পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ হাউস অব লডস্ এ অনুষ্ঠিত হয় আন্তর্জাতিক সম্মেলন। উক্ত সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বিরোধী দলীয় সাবেক হুইপ ব্যারেনেস লোরলি জইন বার্ট।

বাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি, মানবাধিকার লঙ্ঘন , আইনের শাসন ও বর্তমান পরিস্থিতির উপর অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক সেমিনার পরিচালনা করেন ভয়েস ফর বাংলাদেশের ফাউন্ডার আতাউল্যাহ ফারুক। বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে জোরপূর্বক বিদেশে প্রেরণ, ক্ষমতাচ্যুত করা এবং ১১তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নিরপেক্ষতা নিয়ে আশংকা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন, লর্ড হোসাইন, লর্ড এন্ডুস্ট্রানেল, টনি লয়েড এমপি, এমিনেষ্ট্রি ইন্টারন্যাশনালের সাবেক এশিয়া বিষয়ক প্রধান আব্বাস ফয়েস, আন্তর্জাতিক আইনবিদ মাইকেল পলক, সাবেক মেজর আবু বকর সিদ্দিক, বাংলাদেশী স্টুডেন্ট ইউনিয়নের কনভেনর এইচ এস সোহাগ, ভয়েস ফর বাংলাদেশ ইউকের কনভেনর ফয়সাল জামিল, আর্ন্তজাতিক মানবাধিকার কর্মী, ইউরোপিয়ান কমিশন প্রতিনিধি প্রমুখ।

বক্তাগণ বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি, মানবাধিকার, আইনের শাসন, বেগম খালেদা জিয়াকে হয়রানি মূলক মামলায় জেলে প্রেরন, তারেক রহমানের উপর ফরমায়েশি আদেশ, ২০১৪ সালের প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন এবং আসন্ন নির্বাচন নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তারা বলেন বাংলাদেশকে গণতান্ত্রিক ধারায় ফিরিয়ে আনার জন্য এখনই উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিৎ। একটি নিরপেক্ষ, নির্দলীয় নির্বাচনের মাধ্যমই এর সমাধান হতে পারে। তারা বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের বিষয়ে সংশয় প্রকাশ করেন। সাবেক হুইফ ব্যারোনেস লোরলি বার্ট বাংলাদেশ বিষয়ে প্রত্যেক ব্রিটিশ বাংলাদেশীদেরকে নিজ নিজ এমপি বরাবরে চিঠির মাধ্যমে বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি অবহিত করার জন্য পরামর্শ দেন। তিনি উপস্থিত অনেকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন।

আয়োজক কমিটির মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কানিজ ফাতেমা, আবদুর রহিম, আলাউদ্দিন রাসেল, নূর হোসেন, আবদুল্লাহ আল নোমান, লুৎফুর রহমান লিংকন, মনোয়ার মোহাম্মদ, আবুল হোসেন নিজাম, আব্দুল্লাহ আল মামুন, নাজমুল হুদা মাসুদ, জাহাঙ্গীর শিকদার, লুবা চৌধুরী, পারভেজ আজম, আবদুল ওয়াহাব রুবেল, আল কবির ওয়াহাব, মুহাম্মদ আসাদ, ফজলে রহমান পিনাক, মো: শাকিল মিনহাজ, প্রমুখ। আরো উপস্থিত ছিলেন সলিসিটর এমরাম মজুমদার, অঞ্জনা আলম, মো: সোহরাওয়াদী, লুনা হোসেন, মো: সালেকিন মিয়া, ফয়েজ আমদ, মারুফ আদনান চৌধুরী, মোহাম্মদ আলা উদ্দিন, ফয়সাল আহমেদ, কামরুল হাসান, মোঃ জাহাঙ্গীর শাহ নেওয়াজ চৌধুরী, শাহাদাৎ হোসাইন, মোঃ ইফতেখার হোসাইন, মোঃ লায়েক, মোঃ তাজুল ইসলাম, এম কে হাসান, শাওন কবির, মোঃ সুয়াহিবুর রহমান, মো: জাফিরুল হক, মো: আবু নাসের, তানবীর চৌধুরী সুমন, মো: আব্দুল ওয়াদুদ, নাজিয়া আকবর, শাহাদাৎ হোসেন, মোঃ একলিমুর রাজা চৌধুরী মান্না, নওশীন মুশতারী মিয়া সাহেব, সেলিম উদ্দিন ও অন্যান্য।