Skip to main content

ব্রেক্সিটের অন্তবর্তীকালিন সময় বাড়তে পারে: থেরেসা

আসিফুজ্জামান পৃথিল : আইরিস সীমান্ত নিয়ে সৃষ্ট জটিলতার কারনে ব্রেক্সিটের অন্তবর্তীকালিন সময় বাড়ার শঙ্কার কথা ব্যক্ত করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। ইউরোপিয় ইউনিয়ন সম্মেলনের ২য় দিন সম্মেলনস্থলে পৌঁছে এ কথা জানান মে। এদিকে ব্রেক্সিট চুক্তির জন্য নভেম্বরে বিশেষ সম্মেলনের প্রস্তাব দিয়েছেন ইউরোপিয় নেতারা। তবে ব্রাসেলস-এ নিজের বক্তব্যে মে নতুন কোন কিছু প্রস্তাব করেন নি। ইউরোপিয় ইউনিয়ন নেতারা চান নভেম্বরে বিশেষ সম্মেলন করেও যেনো ব্রেক্সিট চুক্তির খসড়া তৈরী করা হয়ং। তবে তারা কর্মকর্তাদের চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের জন্যও প্রস্তুত থাকতে পরামর্শ দিয়েছেন। ব্রেক্সিটের সময় চুক্তি হবে কি হবে না, তা নিয়ে নিজ দল ও দলের বাইরে প্রবল চাপে রয়েছেন থেরেসা। তবে নিজের রক্ষণশীল মতামতের ওপর অটল রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী। এ সপ্তাহেই পার্লামেন্টে নিজের দেওয়া ভাষণে মে জানিয়েছিলেন, তিনি যুক্তরাজ্যের অষন্ডতার বিষয়ে কোন রকম ছাড় দেবেন না। উত্তর আয়ারল্যান্ডের সীমান্তের ব্যাপারে ব্রাসেলস যদি নিজেদের বক্তব্য থেকে সরে না আসে তবে চুক্তি ছাড়াই সম্পন্ন হবে ব্রেক্সিট। নিজের বক্তব্যের পর সম্মেলনস্থল থ্যাগ করেন মে। তবে ইউরোপিয় ইউনিয়নের বাকি ২৭ নেতা নিজেদের কাজ চালিয়ে যান। অন্তবর্তীকালিন সময় বৃদ্ধির বিষয়ে মে বলেন, ‘আমি মনে করি ২০২০ সালের ডিসেম্বর নাগাদ সবকিছু সম্পন্ন করা সম্ভব। তবে যদি কোন কারণে তা সম্ভব না হয় মেয়াদকাল অবশ্যই বৃদ্ধি করা যেতে পারে। চুক্তি কিভাবে হতে পারে তা নিয়ে আমরা একটি প্রস্তাব পেশ করেছি।’ ডেইলি মেইল, সিএনএন

অন্যান্য সংবাদ