প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একক ভাবে নির্বাচন করবে খেলাফত আন্দোলন

মো. ইউসুফ আলী বাচ্চু: আসন্ন সংসদ নির্বাচনে একক ভাবে ৩’শ আসনে নির্বাচন করবে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন এ তথ্য জানিয়েছেন, দলটির আমীর কারী শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হফেজ্জী হুজুর। আর যদি ৩’শ আসনে নির্বাচনে সমর্থ না হই তাহলে যতটা সম্ভব আসনে প্রাথী দেবো। নীতি আদর্শ মেনে যদি আমাদের সাথে কোন দল জোট এক্যবদ্ধ হতে চায় তাহলে সাধুবাদ জানাবো। অবস্থার প্রেক্ষিতে যদি আমাদের অবস্থান পরিবর্তন হয় তাহলেও জানানো হবে।

সাম্প্রদায়ীক সম্প্রীতি বজায় রেখে দেশ পরিচালনা করতে চাই উল্লেখ করে কারী শাহ আতাউল্লাহ বলেন, এ দেশ আমাদের সবার, এখানের কোন ধর্মীয় উগ্রতা থাকবে না।

নির্বাচন প্রসঙ্গে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন ১৪ দফা লক্ষ স্থির করেছে। দফাগুলো হলো

০১. খেলাফত আন্দোলন খেলাফতে রাশেদার আদর্শে রাষ্ট্র পরিচালনার জন্য যোগ্য, দ্বীনদার ও আদর্শ সুনাগরিক গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে ব্যপক তা’লীম ও তরবিয়াতী কর্মসূচী গ্রহণ করবে এবং যোগ্য মুত্তাক্বী ব্যক্তির নির্বাচিত হওয়ার নিশ্চয়তা বিধানকল্পে বর্তমান নির্বাচন পদ্ধতির অমূল সংস্কারের চেষ্টা চালাবে।

০২. কুরআন-সুন্নাহর আলোকে শিক্ষাব্যবস্থার আমূল সংস্কার সাধন করে বৃত্তিমূলক শিক্ষাব্যবস্থার ব্যপক প্রসারের মাধ্যমে বিভিন্ন পেশায় সুদক্ষ, চরিত্রবান নাগরিক গড়ে তুলবে এবং বেকার সমস্যা সমাধানের উপায় উদ্ভাবন করবে।

০৩. পুঁজিবাদ শোষণমূলক অর্থব্যবস্থার উচ্ছেদ ঘটিয়ে পেশাজীবী মেহনতি মানুষের অংশীদারিত্বের মাধ্যমে শোষণহীন অর্থব্যবস্থা প্রবর্তন করবে। সুদ, ঘুষ দুর্নীতি, কালোবাজারী, জুয়া, ভেজাল, জালিয়াতি ও ভোগ- বিলাসের সকল পথ বন্ধকরে প্রতারণামূলক সুবিধাভোগের সকল সুযোগ সুবিধা রহিত করবে এবং বায়তুল মাল কায়েম করে নিস্ব, পঙ্গু, এতিম, বেকার ও বিধবাদের ভাতা প্রদানের ব্যবস্থা করবে।

০৪. কুরআন-সুন্নাহর আলোকে বর্তমান বিচারব্যবস্থার আমূল সংস্কার সাধন করে ইনসাফভিত্তিক সহজ ও দ্রুত বিচার ব্যবস্থা চালু করবে এবং বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নিশ্চিত করবে।

০৫. রাষ্ট্রের সকল ধর্মালম্বীদের জন্য ধর্মীয় স্বাধীনতা এবং সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হবে।

০৬. আর্ন্তজাতিক বিশ্বে খেলাফত কায়েমের লক্ষ্যে মুসলিম বিশ্বে খেলাফত আন্দোলন সম্প্রসারিত করা হবে।

০৭. বিদেশী পণ্যের বাজার সংকুচিত করে দেশজ শিল্পকে উৎসাহিত করা হবে।

০৮ পুঁজিবাদী গণতন্ত্রের প্রবঞ্চনা ও সমাজতন্ত্রের তথাকথিত সাম্যবাদের দাসত্ব থেকে মুক্ত করে সম্প্রীতি স্থাপন করা হবে।

০৯. দেশের বিভিন্ন পেশার মানুষদের সংগঠিত করে সকল পেশায় ইসলামী আদর্শের প্রতিফলনের ব্যবস্থা করা হবে।

১০. জাতীয় প্রতিরক্ষা মজবুদ ও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে ১৫-৪০ বছরের সকল নাগরিকে ইসলামের আলোকে প্রশিক্ষণ প্রদান করবে।

১১. ইসলামী নীতির ভিত্তিতে কৃষি ব্যবস্থাপনা করবে।

১২. আয়কর ও শুল্কনীতি সংস্কার করে কুরআন-সুন্নাহর আলোকে ব্যবস্থা করবে।

১৩. শরীয়ত মতে মাতৃজাতির মর্যাদার ব্যবস্থা করবে।

১৪. সার্বোভৌমত্ব অক্ষুন্ন রেখে সকল দেশের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপন করবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত