প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌদি আরব বাংলাদেশের উন্নয়নের অংশ হতে চায়: যুবরাজ সালমান

ডেস্ক রিপোর্ট: সৌদি আরব বাংলাদেশের উন্নয়নের অংশ হতে চায় বলে জানিয়েছেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজ।

বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় রিয়াদের রাজকীয় প্রসাদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈঠকে তিনি এ আগ্রহ প্রকাশ করেন বলে পররাষ্ট্রসচিব মো. শহীদুল হক জানিয়েছেন।

মোহাম্মদ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজ দেশটির উপ প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করছেন।

বৃহস্পতিবার মদিনা থেকে জেদ্দা যাওয়ার সময় উড়োজাহাজে এই বৈঠকের বিষয়ে সাংবাদিকদের জানান পররাষ্ট্র সচিব।

শহীদুল হক বলেন, ‘অত্যন্ত উষ্ণ ও হৃদ্যতাপূর্ণ’ পরিবেশে আধঘণ্টার বেশি সময় ধরে শেখ হাসিনা ও মোহাম্মদ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজের মধ্যে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

“মোহাম্মদ বৈঠকে বলেন যে, তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্পর্কে জানেন। বাংলাদেশে এখন অনেক কিছু ঘটছে। ক্রাউন প্রিন্স বলেন, ‘বাংলাদেশের এই উন্নয়নের অংশ হতে চাই’।”

সৌদি যুবরাজ বাংলাদেশে সৌদি প্রতিনিধি ও বিশেষজ্ঞ দল পাঠানোর নির্দেশ দেন বলেও পররাষ্ট্র সচিব জানান।

যুবরাজ এসময় বলেন, বিশেষজ্ঞদের মতামতের ভিত্তিতে কোন খাতে বিনিয়োগ করা যায় সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সৌদি আরব বিভিন্ন দেশে বিনিয়োগ করছে, বাংলাদেশেও করবে।

প্রতিরক্ষা খাতে বাংলাদেশের সঙ্গে সহযোগিতার ওপর জোর দিয়ে মোহাম্মদ বলেন, এই সহযোগিতা বিভিন্ন ক্ষেত্রে চলতে থাকবে।

শহীদুল হক বলেন, “মোহাম্মদ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজ বাণিজ্য ও বিনিয়োগ এবং প্রতিরক্ষা খাতে সহযোগিতার কথা বলেছেন। এটা খুবই পরিস্কার।

“সৌদি আরবের বড় বিনিয়োগ হবে বলে আশা করি।”

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালে মোহাম্মদ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজ তা গ্রহণ করেন বলেও জানান পররাষ্ট্র সচিব।

প্রধানমন্ত্রী ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে একতার ওপর জোর দিয়ে বলেন, নিজেদের মধ্যে সংঘাত সৃষ্টি না করে সবাই মিলে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা দরকার।

এই প্রসঙ্গে মোহাম্মদ বলেন, “আমরাও চাই সবাই মিলে শান্তিতে থাকুক।”

বৈঠকের প্রাণবন্ত পরিবেশের কথা তুলে ধরে শহীদুল হক বলেন, “প্রধানমন্ত্রী ২০০৯ সাল থেকে ছয়বার সৌদি আরব সফরের কথা উল্লেখ করলে যুবরাজ বলেন, ‘তাহলে আপনি অর্ধেক সৌদি’।”

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী, পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, আইসিটি সচিব জুয়েনা আজিজ এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান সচিব রৌনক জাহান প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

এর আগে বুধবার স্থানীয় সময় দুপুরে রিয়াদের রাজপ্রাসাদে শেখ হাসিনার সঙ্গে বাদশাহ সালমানের বৈঠক হয়। পরে তারা মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেন।

সৌদি বাদশাহর আমন্ত্রণে চার দিনের সফরে মঙ্গলবার সৌদি আরব পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার তিনি মক্কায় ওমরাহ পালন করবেন। সফর শেষে শুক্রবার তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ