প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পুলিশ সুপারের সংবাদ সম্মেলন
চাঁদপুরে শালীর পরকীয়ায় স্ত্রীকে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন

মিজান লিটন, চাঁদপুর: চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে একটি হত্যার ঘটনায় পুলিশ সুপারের সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম সাংবাদিকদের কাছে হাজীগঞ্জে নাসরিন আক্তার রিবার হত্যার মূল ঘটনাটি তুলে ধরেন।

এ সময় তিনি বলেন, সম্প্রতি জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় হাজীগঞ্জের এ হত্যা কাণ্ডটি নিয়ে রহস্যজনক সংবাদ প্রকাশ হয়। এরপর থেকেই আমরা এ ঘটনাটির মূল রহস্য উদঘাটনে নেমে পড়ি। তখন মেয়ের বাবা আব্দুর রহিম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলায় এসআই আব্দল ফারুককে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়। সে দায়িত্ব পাওয়ার পর ভিকটিমের স্বামী হযরত আলীকে বাকিলা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে।
পরবর্তীতে বুধবার হযরত আলী বিজ্ঞ আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দী প্রদান করে। আর এতেই হত্যা কাণ্ডের মূল রহস্য বেরিয়ে আসে।

সে জানায়, তার স্ত্রী রিবার ছোট বোন আইরিনের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক হয়। এক পর্যায়ে এ সম্পর্ক শারীরিক সম্পর্কের রূপ নেয়। আইরিনই তাকে ফোন করে বিদেশ থেকে দেশে এনে তাকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করে। তখন সে জানায় যে, তোমার বোন আমার ঘরে রয়েছে। আমি কিভাবে তোমাকে বিয়ে করি। আইরিন বলে, তুমি দেশে আছো, আমি ব্যবস্থা করবো। সে অনুযায়ী হযরত আলী কাউকে না জানিয়ে দেশে এসে আইরিনের সাথে যোগাযোগ করে ঘরে প্রবেশ করে ৯ অক্টোবর রিবাকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে সে সু-কৌশলে পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে এ হত্যাকাণ্ডকে অন্যদিকে প্রবাহিত করার জন্য আইরিন অজ্ঞানের ভান ধরে পরে থাকে। আইরিনকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ