প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গানের জাদুকরকে নিয়ে ফেসবুকে যত মন্তব্য

মহসীন কবির : গানের জাদুকর আইয়ুব বাচ্চু হঠাৎ চলে গেলেন না ফেরার দেশে। বৃহস্পতিবার সকালে মারা যাওয়ার পর থেকেই ভক্তদের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। হঠাৎ তাঁর চলে যাওয়া মেনে নিতে পারছেনা ‘এবি’ ভক্তরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এরইমধ্যে তাঁকে ঘিরে কণ্ঠশিল্পী, চলচ্চিত্রকর্মী, সংগীত পরিচালক, ভক্তরাসহ অনেকেই শোকগাঁথা স্ট্যাটাস দিচ্ছেন। সংগীতাঙ্গনের অনেকেই ছুটে গেছেন স্কয়ার হাসপাতালে। গুণী এই শিল্পী কোটি মানুষের হৃদয়ে ‘এবি’ নামে পরিচিত। রক ঘরানার গানের এই শিল্পী আধুনিক আর লোকগীতিতেও শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছেন। ফেসবুকে ভক্তদের স্ট্যাটাসগুলো তুলে ধরা হলো।

নাজমুল করিম ফারুক লিখেছেন,
সে তারা ভরা রাতে….
১৯৯৭/১৯৯৮ সালে আমি প্রচুর আধুনিক গান শুনতাম। ব্যান্ড সংগীতে আমার তেমন কোনো আগ্রহ ছিল না। একদিন আমার সহপাঠি ‘কলি’ আমার হাতে একটা ফিতার অডিও ক্যাসেট ধরিয়ে দিয়ে বললো- গান পাগলা গানগুলো শোনো। ভালো লাগবে। সেদিন আইয়ুব বাচ্চুর স্থির চিত্রটি চোখে পড়লেও ‘সে তারা ভরা রাতে….’ গানটির মাধ্যমে তাঁর প্রতি আমার প্রথম দুর্বলতা প্রকাশ পায়। আজ খুব ভোরে আমি ঘুম থেকে উঠার পর হঠাৎ মনে পড়েছিল আইয়ুব বাচ্চুর ‘যেও না চলে বন্ধু’ গানটি শুনবো। অথচ সাড়ে ১০টায় টিভি স্ক্রিনে দেখতে পেলাম আমার সেই প্রিয় কণ্ঠ শিল্পীটি এ পৃথিবী ছেড়ে গেছেন। আজ থেকে হয়তো নতুন সুর আর সৃষ্টি হবে না; অতীত স্মৃতির মাঝে (গান) সে বেঁচে থাকবে অনন্তকাল।

তারিক আপন লিখেছেন,
আইয়ুব বাচ্চু মারা যাননি! তিনি মারা যেতে পারেনই না! অনেকেরই মৃত্যু হবে! অনেকেই হারিয়ে যাবেন। কিন্তু আমাদের মতো লাখো-কোটি মানুষের শৈশব, কৈশোর আর যৌবন মাতিয়ে রাখা এবি বস-এর মৃত্যু নেই! আগামীতেও সহস্র নির্ঘুম রাতে, লাখো আনন্দ মুখর সন্ধ্যায় আর প্রতিটি যাপিত জীবনে তার গানই হবে আমাদের অবলম্বন! অশ্রতে-আনন্দে আসুন এখন থেকেই আমরা আমাদের কিংবদন্তির জীবনটা সেলিব্রেট করি… তারপর অনাগত সন্তানরাও একদিন নিশ্চয়ই গুনগুনিয়ে গেয়ে উঠবে তারই কোনো চেনা গান.. চেনা লিরিকে খুঁজবে যন্ত্রণা মুছে ফেলার মন্ত্র। রূপালি গিটার ফেলে অভিমানে দূরে কোথায় চলে যেতে চাইবে কোনো এক নাম না জানা কিশোর! অহংকার-ভালোবাসায় প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে আমরা বলবো-আমাদের একজন আইয়ুব বাচ্চু আছেন!

সানি আজাদ লিখেছেন, গুরু কেন এভাবে আমাদের কাঁদিয়ে……….। এত অল্প সময়ে উড়াল দিলো আকাশে……..। সালাম…তোমার মতো গিটারিষ্ট এবং সঙ্গীতশিল্পী কি আমরা আর পাবো? জাতি তোমার কাছে ঋণী। তুমি জান্নাতবাসী হও।

প্রতীক উজাজ লিখেছেন, আপনি আমাদের আলো, তারা, পাখি। আইয়ুব বাচ্চু, এ মৃত্যু নয়; দেহান্তর মাত্র। আপনার মতো সংগীতের এমন মহৎপ্রাণের, এমন কিংবদন্তীর মৃত্যু নেই। আপনি, আপনার গান, আকাশের তারা হয়ে আলোময় করে রাখবে আমাদের। আপনার প্রতি আমাদের ভালবাসা শ্রদ্ধা আগের মতোই অসীম অন্তহীন।

আবু মুসা ভ‚ইয়া লিখেছেন, রক গানের স্রষ্টা এবি আচমকা চলে যাবেন ভাবিনি। যে মানুষটি শিল্পী সমাজের বিপদে সবার আগে এগিয়ে এসে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতেন, সে মানুষটি কাউকে সুযোগ দিলেন না পাশে দাঁড়াবার। উনার মৃত্যুতে সংগীত জগতের যে ক্ষতি হলো তা আর পূর্ণ হবার নয়। উনার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। আল্লাহ আপনি বাচ্চু ভাইকে জান্নাত দান করুন। আমিন।

মাহমুদ সুজন লিখেছেন, হাসতে দেখো, গাইতে দেখো……। আর তাকে হাসতে দেখা যাবে না, গাইতেও দেখা যাবে না! মঞ্চ মাতাতেও আর দেখা যাবে না। ‘সেই তুমি কেনো এতো অচেনা হলে।’ কী হতে কী হলো……।

সালাম সাকিব লিখেছেন, ‘এই রূপালি গিটার ফেলে একদিন চলে যাবো দূরে-বহুদূরে…’ আইয়ুব বাচ্চু… আমার মতো আরো অনেকের কৈশোর সুরের মায়াজালে বন্দী করে রাখার জন্য আপনাকে ভালোবাসা… ভালো থাকুন- আকাশের তারায়…।

আলি ইমাম সুমন লিখেছেন, ‘দেখে না কেউ, হাসি শেষে নিরবতা’ বাচ্চু ভাই, হুট করে এটা কেমন অভিমান! এভাবে কি চলে যেতে হয়! বুকের সব কষ্ট দুহাতে সরিয়ে এখন বদলে যাওয়ার ডাক আমাদের কে দেবে? (রূপালি গিটার ফেলে না ফেরার দেশে চলে গেলেন ব্যান্ড লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চু। যেখানেই থাকুন, ভালো থাকবেন।)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ