প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জমি দখলের মামলাটি ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত : ডা. জাফরুল্লাহ

হ্যাপি আক্তার : জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগে বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী ডা. জাফরুল্লাহর শাস্তির দাবি জানিয়েছে আশুলিয়ার মির্জানগরের এলাকাবাসী। ভূমিদস্যু আখ্যা দিয়ে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে আশুলিয়ার ধামসোনা ও পাথালিয়া ইউনিয়নের মানুষ। আশুলিয়া থানায় মামলার সুষ্ঠু তদন্ত করে শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানায় তারা। তবে জাফরুল্লাহ দাবি করেন, মামলাটি ভিত্তিহীন এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

দীর্ঘদিন ধরে পর্যায়ক্রমে আশুলিয়ার মির্জানগরের গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল এবং গণবিশ্ববিদ্যালয় ও ফার্মাসিউটিক্যালসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

তবে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে জমি দখল ও জমির মালিকদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৫ অক্টোবর রাতে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন মোহাম্মদ আলী নামে এক ভুক্তভোগী।

মামলার বাদী মোহাম্মদ আলী বলেছেন, এত কষ্ট করে জায়গাটি কিনেছি। উনি (ডা. জাফরুল্লাহ) বলছেন, আপনি যদি জায়গাটা না দেন, তাহলে জোর করেই কিছু একটা করতে হবে। আর তা না হলে যেকোনো সময় আমরা আপনাকে মেরে ফেলবো।

স্থানীয় অন্য একজন জানান, ১৭ বছর দেশের বাইরে ছিলাম, এরপর এখানে এসে আমি ৬ শতাংশ জায়গা কিনি। কিন্তু এই লোকের কারণে আমাদের শান্তি বিনষ্ট হচ্ছে। এলাকার অনেক জমি উনি জোর করে দখল করে নিয়েছেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী বলেছেন, ‘জমি কিনলেও জমি থেকে উচ্ছেদ করে দেওয়া হয়। কারও কোথাও যাওয়ার মতো জায়গা থাকে না। তারা তো ক্ষমতাশালী লোক। আমরা তো গরিব। আমাদের তো কিছু বলার জায়গা নেই।’

তবে, মামলাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানান আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রিজাউল হক দিপু। মামলার বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, ‘আমাদের থানায় একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। আমরা সেটাকে এজহার হিসেবে গণ্য করেছি। বর্তমানে মামলাটি তদন্তাধীন আছে। ওখানে ডা. জাফরুল্লাহ সাহেব এবং তার আরও তিনজন সহযোগী মোট চারজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

এদিকে পুরো ঘটনাকে বানোয়াট এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।মামলার বিষয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত মামলা। ২০০৩ সালের ঐ মামলা এখন টেনে আনার কোনো মানেই হয় না। জায়গা জমি এগুলো সিভিল ব্যাপার, এগুলোরতো সুরাহা হয়েই গেছে।’ সূত্র : ডিবিসি নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ