প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ

মহিব আল হাসান: জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক শোকবার্তায় রাষ্ট্রপতি মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি ও মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসস্থ পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানান।

এদিকে অপর এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের সংগীত জগতে আইয়ুব বাচ্চুর অবদানের কথা স্মরণ করেন।

শেখ হাসিনা আইয়ুব বাচ্চুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন।

আইয়ুব বাচ্চুর সহকর্মী সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার শামীম জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৫৫মিনিটে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রূপালী গিটারের জনপ্রিয় গায়ক আইয়ুব বাচ্চু। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর।

এলআরবি’র সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার রংপুরে কনসার্ট ছিল আইয়ুব বাচ্চুর। কনসার্ট শেষ করে গতকাল বুধবার ঢাকায় তার বাসায় ফেরেন। আজ বৃহস্পতিবার মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয় এই শিল্পীর। বাসায় অচেতন অবস্থায় থাকলে তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানা যায়, ‘তিনি কিছুদিন আগেও তার চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তার বিভিন্ন সমস্যার বিষয় নিয়ে ডাক্তারদের সাথে যোগাযোগ করতেন। শরীরের প্রতিনিয়ত চেকআপ করাতেন। বাংলা ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চু জন্মেছিলেন ১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট। চট্টগ্রামে।

সংগীত জগতে তার যাত্রা শুরু হয় ‘ফিলিংস’-ব্যান্ডের মাধ্যমে ১৯৭৮ সালে। এরপর দীর্ঘ দিন তিনি সোলস ব্যান্ডে ছিলেন অনেক বছর। তারপর নিজেই ব্যান্ড গঠন করেন এলআরবি নামে। শুরুতে এলআরবি ছিলো লিটল রিভার ব্যান্ড, পরবর্তীতে এটিকে তিনি লাভ রানস ব্লাইন্ড করেন। অত্যন্ত গুণী এই শিল্পী তার শ্রোতা-ভক্তদের কাছে এবি নামেও পরিচিত। তাঁর ডাক নাম রবিন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ