প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০১৮-১৯ সালে বায়ো-ডিজেল রপ্তানিতে রেকর্ড করবে মালয়েশিয়া

নূর মাজিদ : ২০১৮ সালে এবং পরবর্তী বছরেও রেকর্ড পরিমাণ বায়ো-ডিজেল রপ্তানি করবে মালয়েশিয়া। ২০১৭ সালের পর থেকে বিশ্ববাজারে জীবাশ্ম জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে মালয়েশিয়ার পাম থেকে উৎপাদিত বায়োফুয়েলের চাহিদা বাড়ছে। এর প্রেক্ষাপটেই চলতি বছরের শেষ নাগাদ এবং আগামী ২০১৯ সালে বায়োডিজেলের রপ্তানি রেকর্ড পরিমাণ হবে, দাবি মালয়েশিয়ার বায়ো-ডিজেল উৎপাদক অ্যাসোসিয়েশনের।

গতকাল মঙ্গলবার সংস্থাটি প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, চলতি বছর মালয়েশিয়া ৯ লাখ টন বায়োডিজেল উৎপাদন করবে। এর মধ্যে অভ্যন্তরীণ চাহিদা মিটিয়ে ৪ লাখ ৭৫ হাজার টন বায়োডিজেল রপ্তানি করা হবে। বিশেষ করে, বিশ্ববাজারে যদি তেল ও গ্যাসের বর্তমান উচ্চমূল্য বজায় থাকে সেক্ষেত্রে ২০১৯ সালে ডিজেল উৎপাদন ও রপ্তানির নতুন রেকর্ড অর্জন করবে মালয়েশিয়া।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশ মালয়েশিয়া বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ পাম তেল উৎপাদক দেশ। পাম ফল থেকে উৎপাদিত ভোজ্য তেল ও ফ্যাট, মানুষ ও গাবাদিপশুর খাদ্য তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও, চলতি দশকে পামওয়েল থেকে উৎপাদিত বায়োফুয়েল বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে বিশ্ব জ্বালানি বাজারে। জীবাশ্ম জ্বালানির চাইতে তুলনামূলক কম দূষণের কারনে বিশ্বের অনেক পরিবেশ সচেতন সরকার বর্তমানে বায়োফুয়েলের ব্যবহার উৎসাহিত করছে। আর সেখানেই সম্ভাবনার নতুন দুয়ার খুলছে মালয়েশিয়ার সামনে। কমোডিটি অনলাইন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ