প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সরিষাবাড়ীতে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ২৫

সৈকত আহমেদ বেলাল, জামালপুর: জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে ২ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ২৫ ব্যক্তি আহত হয়েছে। ১৬ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেলে আওনা ইউনিয়নের পঞ্চাশী গ্রামের সয়াব্রীজপাড়ে এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে গুরুতর আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ১৫ অক্টোবর আওনা ইউনিয়নের পঞ্চাশী গ্রাম ও পার্শ্ববর্তী টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ী উপজেলার মুশুদি ইউনিয়নের সয়া গ্রামের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। খেলার হার-জিত বিষয়কে কেন্দ্র করে ২ দলের খেলোয়াড়দের মাঝে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার জের ধরে ১৬ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেলে পঞ্চাশী গ্রামের কৃষক আফজাল, সয়া বাজারে জৈব সার কিনতে গেলে তাকে সয়া গ্রামের লোকজন মারপিট করে সয়া ব্রীজের উপরে ফেলে রাখে।

এ ঘটনা জানাজানি হলে পঞ্চাশী ও সয়া গ্রামের মাঝে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে ২ গ্রামের অন্তত ২৫ জন আহত হয়। আহতরা হলো আওনা ইউপি‘র সদস্য লুৎফর, কৃষক আফজাল, রাব্বি, কালু, হায়দর, রহিমা, ওয়ারেছ, রায়হান, নুরুল, ফরিদা, আবেদ, মোয়াজ্জেম, ফরিদ, রতন, মফিজ, রওশনারা, কামরুল, আজম, রতন, শাকিল, দিপু, শাকিল-২ ও স্বপন। এদের মধ্যে আফজাল, রাব্বি ও ওয়ারেছের অবস্থা অবনতি হলে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

চিকিৎসাধীন কালু ও রহিমা বেগম জানান, সাংসারিক কাজ করার সময় সয়া গ্রামের শতাধিক লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে পঞ্চাশী গ্রামে এসে অতর্কিত হামলা চালায়। বাধা দিলে নারী-শিশুদের উপরও হামলা করে।

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মাজেদুর রহমান জানান, সংঘর্ষের সাথে সাথে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ