প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুর্নীতির অভিযোগে তিতাসের ৫ কর্মকর্তা বরখাস্ত

মহসীন কবির : অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের ৫ কর্মকর্তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়ছে। বুধবার সকালে এ খবর জানা গেছে। এদের মধ্যে হিসাবে গরমিলের অভিযোগে হিসাব বিভাগের ডিজিএম, ম্যানেজার ও ডেপুটি ম্যানেজারকে এবং সিএনজি স্টেশনে গ্যাসের কারচুপির অভিযোগে দুজন ব্যবস্থাপককে বরখাস্ত করা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিসট্রিবিউশন কোম্পানির একজন কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

হিসাব গরমিলের অভিযোগে অভিযুক্তরা হলেন, তিতাসের হিসাব বিভাগের ব্যবস্থাপক মো. হুমায়ুন কবির খান, উপ-ব্যবস্থাপক নাজমুল হক (বেতন ও তহবিল বিভাগ) ও উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. আব্দুর রশিদ এবং গ্যাস কারচুপির অভিযোগে অভিযুক্তরা হলেন— মিটারিং ও ভিজিল্যান্স টিমের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. মহিদুর রহমান এবং পাইপলাইন নির্মাণ বিভাগের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. গোলাম মোস্তফা খান। গাজীপুরের কুনিয়া এলাকার যমুনা সিএনজি স্টেশনে তাদের বিরুদ্ধে অনিয়মের এই অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এর আগে গত ২০ সেপ্টেম্বর, তিতাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর মসিউর রহমানসহ ৮ কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে দুদক। গত ১ ও ২ অক্টোবর তাদের দুদকে হাজির হতে বলা হয়েছিল। তবে দুদকের ডাকে হাজির না হয়ে অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে ২ থেকে ৩ সপ্তাহ সময় চান তিতাসের এমডি পরিচালক মীর মসিউর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

যেখানে তাদের ডায়াবেটিকস, হাইপারটেনশন, হাড়ের রোগ ইত্যাদি রোগের কথা উল্লেখ করে ডাক্তারি সার্টিফিকেট সংযুক্ত করা হয়। যদিও অভিযোগ ছিল তারা দুদকে হাজির না হয়ে অফিস করেছিলেন। দুদক ২০১৭ সালের ৬ এপ্রিল থেকে দুদক অভিযোগটি অনুসন্ধান করছে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ