প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আজ মহাষ্টমী ও কুমারী পূজা

সুজন কৈরী : শারদীয় দুর্গোৎসবের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার মহাসপ্তমীতে ভক্ত, পূজারি ও দর্শনার্থীর উপচেপড়া ভিড়ে জমজমাট হয়ে উঠেছিল রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন পূজামণ্ডপ। এদিন মণ্ডপে মণ্ডপে ছড়িয়ে পড়েছিল উৎসবের বারতা। তৃতীয় দিন আজ বুধবার মহাষ্টমী ও সন্ধিপূজা। রামকৃষ্ণ মিশনসহ বেশ কয়েকটি পূমণ্ডপে কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হবে। সকালে পূজা, সন্ধিপূজা ও মধ্যাহ্নে মহাপ্রসাদ বিতরণ করা হবে। মহাষ্টমীতে সবচেয়ে বড় আকর্ষণ কুমারী পূজা। এদিন এক বালিকাকে দেবীর আসনে বসিয়ে মাতৃজ্ঞানে পূজা দেওয়া হবে। পূজারি ও ভক্তরা মহাষ্টমীকে বিশেষ জাঁকজমকপূর্ণ করে পালন করেন।

মঙ্গলবার সকালে মণ্ডপে-মণ্ডপে কলাবউকে স্নান করিয়ে শুরু হয় মহাসপ্তমী। এদিন ত্রিনয়নী দেবীদুর্গার চক্ষুদান করা হয়। ভক্তরা মা দুর্গাকে পুষ্প, নৈবেদ্য, আসন, বস্ত্র, চন্দন, ধূপ ও দীপ দিয়ে পূজা করেন। সপ্তমীবিহিত পূজা শেষে আয়োজন করা হয় পুষ্পাঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ ও ভোগআরতির। মহাসপ্তমী উপলক্ষে সন্ধ্যায় বিভিন্ন পূজামন্ডপে ছিল ধর্মীয় ভক্তিমূলক গান, রামায়ণ পালা ও আরতি প্রতিযোগিতা ।

মঙ্গলবার রাজধানীর পূজামণ্ডপগুলো ঢাক-ঢোল ও ঘণ্টার বাদ্যি-বাজনা আর ভক্তদের পূজা-অর্চনায় মুখর হয়ে ওঠে। সরেজমিন রাজধানীর বেশ কয়েকটি মণ্ডপ ঘুরে দেখা গেছে, নানা বয়সী দর্শনার্থী, পূজারি ও ভক্তদের ভিড় ছিল ব্যাপক। বিশেষ করে সন্ধ্যার পর এ ভিড় ছিল উপচেপড়া। উৎসবে যোগ দিয়েছেন অন্য ধর্মের মানুষও। পূজাকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা মেলায়ও ভিড় করেন দশনার্থীরা। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, মন্ত্রী, সংসদ সদস্যরাও নগরীর বিভিন্ন মণ্ডপ পরিদর্শন করেছেন। এতে মণ্ডপগুলো বাঙালির সার্বজনীন উৎসবের মেলায় রূপ নেয়।

আজ মহাষ্টমীর দিনে দর্শনার্থী, পূজারি ও ভক্তদের এ ভিড় আরো বাড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। সকালে রাজধানীর আর কে মিশন রোডের রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠ ঘুরে মা দুর্গাকে পূজা দিতে দেখা গেছে ভক্তদের। মিশনের দৃদুল মহারাজ সাংবাদিকদের জানান, মঙ্গলবার সকাল সোয়া ৭টায় সপ্তমী পূজা শুরু হয়। পূজা শেষে সকাল সাড়ে ১০টায় ভক্তরা মার চরণে ফুল, বেলপাতা দিয়ে অঞ্জলী দিয়েছেন। অঞ্জলী শেষে মাকে প্রণাম করে ভক্তরা প্রসাদ গ্রহণ করছেন।

আজ সকালে দেবীর মহাষ্টমী কল্পারম্ভ ও মহাষ্টমীবিহিত পূজা শুরু হবে। এরপর পুষ্পাঞ্জলি ও প্রসাদ বিতরণ শেষে রাতে সন্ধিপূজা অনুষ্ঠিত হবে। রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠসহ কয়েকটি পূজা মন্ডপে বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকামতে দুর্গাপূজা আয়োজনের কারণে এসব মণ্ডপে পূজার সময়ের হেরফের ঘটবে কিছুটা। তবে আজকের দিনের প্রধান আকর্ষণই থাকবে কুমারী পূজা। সকালে  রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠ পূজা মণ্ডপে এই কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

এ জন্য অল্পবয়সী একটি মেয়েকে মনোনীত করা হয়েছে, যাকে দেবীদুর্গার প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। শাস্ত্রীয় ব্যাখ্যা অনুসারে তার একটি নামকরণও করা হবে। শাস্ত্রমতে এক বছর বয়সে সন্ধ্যা, দুইয়ে সরস্বতী, তিনে ত্রিধামূর্তি, চারে কলিকা, পাঁচে সুভগা, ছয়ে ঊমা, সাতে মালনী, আটে কুব্জিকা, নয়ে কালসন্দর্ভা, দশে অপরাজিতা, এগারোয় রুদ্রানী, বারোয় ভৈরবী, তেরোয় মহালক্ষণী, চৌদ্দয় পীঠনায়িকা, পনেরোয় ক্ষেত্রজ্ঞা এবং ষোল বছরে অম্নদা বলা হয়ে থাকে। রাজধানী ছাড়াও রামকৃষ্ণ মিশনের নারায়ণগঞ্জ ও দিনাজপুরসহ কয়েকটি মঠ এবং ঐতিহ্যবাহী পূজা ম-পেও কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হবে। সম্পাদনা : হুমায়ুন কবির খোকন/রেজাউল আহসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ