প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘পুষ্পধারা হবে পদ্মাসেতুর অলঙ্কার’

আনিস রহমান : ‘স্বপ্ন সত্যি হবেই’ এ স্লোগানকে ধারণ করে গ্রাহক সমাবেশ করেছে দেশের আবাসন খাতের অন্যতম কোম্পানি পুষ্পধারা প্রপার্টিজ লিমিটেড।

সোমবার দুপুরে মতিঝিলে বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক গোলাম মোস্তফা, বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক ইউনুস আলী, মহাব্যবস্থাপক আ. কাইয়ুম, বাংলাদেশ ব্যাংকের জিএম ইসহাক আলী।

এছাড়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডিজিএম রফিকুল ইসলাম, ডিজিএম বিষ্ণুপদ বিশ্বাস, ডিজিএম সিরাজুল ইসলাম, ডিজিএম আ. হালিম, ডিজিএম নেসার আহমেদ ভূঁইয়া, ডিজিএম শিকদার সিদ্দিকুর রহমান, উপপরিচালক মঈন উদ্দিন খান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ, পুষ্পধারার উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক পারভেজ মিয়া বুলু, মহাব্যবস্থাপক আবু বকর সিদ্দিক, জিএম আব্দুল্লাহ আল মামুন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণাধীন পদ্মাসেতুকে ঘিরে আমাদের এই আবাসন প্রকল্প। পদ্মাসেতু এখন আর স্বপ্ন নয় এটি দৃশ্যমান বাস্তবতা।’
বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক ইউনুস আলী বলেন, ‘পুষ্পধারার গ্রাহকেরা পুষ্পধারার মাধ্যমে তাদের আবাসন সুবিধার স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন এটাও পদ্মাসেতুর মতো বাস্তবতা। আমরা আশাবাদী পদ্মা এলাকায় গড়ে ওঠা পুষ্পধারা হবে পদ্মাসেতুর অলঙ্কার।’
কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ আলীনূর ইসলাম বলেন, ‘পুষ্পধারা প্রতিষ্ঠার পর থেকে অল্প সময়ে গ্রাহকের আস্থা অর্জন করতে পেরেছে। আমরা বিশ্বস্ততার সঙ্গে গ্রাহকদের সেবা দিয়ে যাচ্ছি। যত বাধা-প্রতিকূলতা আসুক না কেন আমরা আমাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।’

‘গ্রাহকরা আমাদের আস্থার কেন্দ্রবিন্দু। এই গ্রাহকদের সঙ্গে নিয়েই সামনে পথগুলো পাড়ি দিতে চাই’ বলেন পুষ্পধারার ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

গ্রাহক সমাবেশে দুই হাজার গ্রাহক ও শুভানুধ্যায়ীদের জন্য শুরু হয় র‌্যাফেল ড্র। এতে এলিট গ্রাহক, শেয়ার হোল্ডার ও সাধারণ গ্রাহক ক্যাটাগরিতে ৪১টি পুরস্কার দেওয়া হয়। র‌্যাফেল ড্র’র প্রথম পুরস্কার ছিল মালয়েশিয়ায় যুগল ভ্রমণ। র‌্যাফেল ড্র’তে মালয়েশিয়ার টিকেট পেয়েছেন কানিজ ফাতেমা। কোম্পানির খরচে ওই পুরস্কারবিজয়ী তিনদিন-তিনরাত মালয়েশিয়া ভ্রমণ করতে পারবেন।
পুরো অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পুষ্পধারা প্রপার্টিজ এর পরিচালক (মার্কেটিং) মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান (শাশ্বত মনির)।
২০১৪ সালে পুষ্পধারা প্রপার্টিজ যাত্রা শুরু করে। ঢাকা-মাওয়া রোডে পদ্মাসেতু সংলগ্ন এলাকায় পুষ্পধারার ‘পদ্মা ভ্যালি’ ও ‘পদ্মা ইকোসিটি’ নামে দুটো প্রকল্প রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ