প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন করাটাই যুক্তিযুক্ত

আবু সাঈদ খান : সম্পাদক পরিষদের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের জন্য যে দাবি সেটা যৌক্তিক দাবি। সরকারের সদিচ্ছা থাকলে সম্ভব। এবং নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন করাটাই যুক্তিযুক্ত। কেননা দেশের সংবাদপত্রের স্বাধীনতা না থাকলে দেশের গণতন্ত্র বিকশিত হয় না। গণতন্ত্রের অপরিহার্য শর্ত হচ্ছে মত প্রকাশের স্বাধীনতা। সেই মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার জন্য নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটি সংশোধন করা দরকার। কেননা আইনের অনেকগুলো ধারা বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নয়টি ধারা চিহ্নিত করেছেন, দেশের সাংবাদিক সমাজ ও সম্পাদক পরিষদ। এই নয়টি ধারা যদি সংশোধিত না হয় তাহলে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা বিঘিœত হবে। এবং এক ধরনের পুলিশের খবরদারি বাড়াবে। পুলিশ যে কোনো সাংবাদিককে, যে কোনো সময়তল্লাশি করতে পারবে, তাকে গ্রেফতার করতে পারবে। এতে সাংবাদিকদেও কাজ ব্যাহত হবে।

মুক্তিযুদ্ধ হচ্ছে চর্চার ব্যাপার। এখানে মুক্তিযুদ্ধের কোনটা সঠিক ইতিহাস সেটা কে ঠিক করে দেবে? এগুলো প্রশাসনের নির্ধারনের কোনো ব্যাপার না। প্রতিনিয়ত চর্চার মধ্য দিয়ে ইতিহাস আরো স্পষ্ট হয়।  আমি মনে করি, এই আইনে মত প্রকাশের স্বাধীনতা ব্যাহত হবে। এই ধরনের আইন গণতন্ত্রের জন্য মোটেও সহায়ক নয়।

পরিচিতি : সিনিয়র সাংবাদিক/সাক্ষাৎকার গ্রহণ ও সম্পাদনা : মো.এনামুল হক এনা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ