প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একমাত্র ছাত্র সমাজই পারে সবকিছু পরিবর্তন করতে : শামীম ওসমান

হাসান মজুমদার বাবলু, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ-৪ (সিদ্ধিরগঞ্জ-ফতুল্লা) আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, একমাত্র ছাত্র সমাজই পারে সবকিছু পরিবর্তন করতে, কিছুদিন আগে তা দেশবাসীকে যেমন দেখিয়েছে। শিক্ষার উপর ভর করেই বাংলাদেশ আগামীতে সামনের দিকে আরো এগিয়ে যাবে পৌছায়ে উন্নয়নের স্বর্ণ শিখরে।

মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) সকালে নারায়ণগঞ্জ মহানগরীর সিদ্ধিরগঞ্জের ৩নং ওয়ার্ডের সানারপাড়া এলাকায় রওশন আরা ডিগ্রি কলেজের নব নির্মিত চার তলা একাডেমিক ভবনের শুভ উদ্বোধন ও নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও অত্র কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো: মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক তোফায়েল হোসেনের সার্বিক তত্তাবধানে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রওশন আরা ডিগ্রি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মোসা: রওশন আরা বেগম, জাতিয় শ্রমিকলীক কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি আব্দুল মতিন মাষ্টার, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো: ইয়াসিন মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, প্রচার সম্পাদক তাজিম বাবু, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন আহমেদ, সাবেক সিদ্ধিরগঞ্জ পৌর প্রশাসক আব্দুল মতিন প্রধান ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রকৌশলী আব্দুল মতিন প্রমূখ।

এসময় সাংসদ শামীম ওসমান বলেছেন, একটা রাষ্ট্রে একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী একজন বিরোধী দলীয় নেত্রীকে মারার জন্য বিশ বার হামলা করেছে, শেষে গ্রেনেড হামলা করা হয়। সেই দেশে আবার ওই দল রাজনীতিও করতে চায়, আমার লজ্জা লাগে। আমার লজ্জা লাগে নিজেকে রাজনীতিবিদ বলতে।

তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ৩১ বছর বয়সে দেশের হাল ধরেছেন। কি দিয়েছি আমরা তাকে? আমরা তার বাবাকে, মাকে, ভাইকেসহ সবাইকে মেরে ফেলেছি। কে ছিল ওনার বাবা? যে দেশ স্বাধীন করার জন্য সারা জীবন সংগ্রাম করেছেন। বছরের পর বছর জেলে থেকেছে। তাকে আমরা মেরে ফেলেছি। এই মহিলাটাকে মারার জন্য বিশ বার চেষ্টা করা হয়েছে। কে করেছে? খালেদা জিয়া এবং তার দল। ২১ শে আগষ্টের গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে তা প্রমাণ হয়েছে বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল।

এছাড়াও তিনি শিক্ষার্থীদেরকে মাদক থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, মাদক যে বিক্রি করে সে যতবড় প্রভাবশালী এবং যে রাজনৈতিক দলেরই হোকনা কে তাকে ছ্ড়া দেয়া হবে না। এসময় তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে বিভিন্ন সুবিধা অসুবিদার কথা জানতে চান।

এছাড়াও রওশন আরা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ হারুনুর রশীদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক মো: মহসিনের সঞ্চালনায় এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু, নাসিক ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও থানা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক শাহজালাল বাদল, ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ওমর ফারুক, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান, জেলা কৃষকলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল হেকিম, মহানগর মহিলালীগের সভাপতি ইসরাত জাহান স্মৃতি, সাধারন সম্পাদক রেহেনা পারভীন, আদমজী আঞ্চলিক শ্রমিকলীগ সভাপতি আব্দুস সামাদ বেপারী, থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক আমিনুল হক রাজু, শেখ মোরতোজা আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহিরুল হক, অভিভাবক সদস্য ফারুকুল ইসলাম ফারুক ও থানা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি নাজমুল হক খোকাসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমূখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ