Skip to main content

পুলিশ হয়রানি করলে ফোন দিন, তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেব : আইজিপি

ডেস্ক রিপোর্ট: পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, মাদকের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এমনকি যদি কোনো পুলিশ সদস্য মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকে তাহলে তাদেরও ছাড় দেয়া হবে না। আমরা মাদক-জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসমুক্ত সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে চাই। পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্য করে আইজিপি বলেন, সাধারণ মানুষকে হয়রানি করা যাবে না। যদি কোনো পুলিশ সদস্য সাধারণ মানুষকে হয়রানি করে বা হয়রানির চেষ্টা করে তবে পুলিশের হটলাইনে ফোন দিন, অভিযোগ করুন, তাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেব। বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের আয়োজনে মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। আইজিপি বলেন, বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন বাংলাদেশকে দাবিয়ে রাখা যাবে না। বর্তমানে আমরাও ঘোষণা করেছি বাংলাদেশকে দাবিয়ে রাখা যাবে না। মাদক ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে শুধু পুলিশের একার পক্ষে সম্ভব নয়, সব শ্রেণির মানুষের প্রচেষ্টায় তা সম্ভব হবে। জনগণের সহযোগিতা ছাড়া সন্ত্রাস, জঙ্গি ও মাদক নির্মূল সম্ভব নয়। আপনি যদি মাদককে ধ্বংস না করেন তবে মাদকই আপনাকে ধ্বংস করে দেবে। ধ্বংস করে দিবে গোটা সমাজকে। পরিবারের অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, আপনাদের ছেলে-মেয়েরা বাড়ি থেকে স্কুল-কলেজের উদ্দেশ্যে বের হয়ে কোথায় কি করছে, কার সঙ্গে মিশে সে ব্যাপারে আপনাদের সচেতন হতে হবে। যারা জঙ্গিবাদকে অতীতে সমর্থন দিয়েছে তাদের যেভাবে আমরা রুখে দিয়েছি ভবিষ্যতেও রুখে দেব। দুপুর ১২টায় সাতক্ষীরা স্টেডিয়ামে পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমানের সভাপতিত্বে মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন- সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য জগলুল হায়দার, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার নিশ্চিন্ত কুমার পোদ্দার, খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার দিদারুল আলম, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মো. ইফতেখার হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোশারফ হোসেন মশু, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু, তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, কলারোয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন ও পৌরসভার মেয়র তাসকিন আহম্মেদ চিশতি প্রমুখ। সূত্র: দেশে বিদেশি

অন্যান্য সংবাদ