প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চট্টগ্রামে চলন্ত বাসে হত্যা, চালক গ্রেপ্তার

শহিদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামে চলন্ত বাস থেকে রেজাউল করিম রনি নামের এক যাত্রীকে ফেলে হত্যার ঘটনায় বাস চালক মো. দিদারুল আলম (৪২)’কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। মঙ্গলবার ভোরে কুমিল্লার বালুতোবা এলাকা থেকে দিদারকে গ্রেপ্তার করে পিবিআই।

এর আগে শনিবার (১৩ অক্টোবর) লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি উপজেলার নুরিয়া হাজীর হাটের একটি বাড়িতে বাসের সহকারী মো. মানিককে গ্রেপ্তার করে পিবিআই। পিবিআই চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পু্লশি সুপার মো. মঈন উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ভাটিয়ারী এলাকায় দুটি বাস রাস্তায় একটি আরেকটিকে অতিক্রমের প্রতিযোগিতা করছিল। একটি বাসের যাত্রী ছিল যুবক রেজাউল করিম রনি। দুটি বাস সিটি গেট এলাকায় পৌঁছে থামার পর রনি অপর বাসে উঠে এবং প্রতিযোগিতা করার বিষয়ে জানতে চান চালক ও হেলপারের কাছ থেকে। এ নিয়ে দিদারও মানিকের সঙ্গে রনির ঝগড়া বেঁধে যায়। দিদার মূল গাড়িচালক হলেও সে সিটে বসা ছিল। গাড়ি চালাচ্ছিল তার আরেক সহযোগী সাদেকুল ইসলাম।

‘দিদার ও মানিক ঝগড়ার এক পর্যায়ে রনিকে ধাক্কা দিয়ে বাস থেকে ফেলে দেয়। এসময় সাদেকুল বাসটি চালানো শুরু করে। এতে চাকার নিচে চাপা পড়ে রনি মারা যায়। তিনি জানান, মানিকের জবানবন্দিতে আমরা দিদার ও সাদেকুলের নাম পাই। সাদেকুলকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। উল্লেখ্য গত ২৭ আগস্ট দুপুরে নগরীর সিটি গেটের অদূরে গ্ল্যাক্সো কারখানার সামনে চলন্ত বাস থেকে পড়ে রেজাউল করিম রনি মারা যান। এ ঘটনার পর স্থানীয়রা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে।

পুলিশ বাসটি আটক করলেও এসময় চালক ও সহকারী পালিয়ে গিয়েছিল। ২৮ আগস্ট রাতে আকবর শাহ থানায় নিহত রনির মামা আব্দুর রহমান বাদী হয়ে বাস চালক দিদারুল আলম ও সহকারী মো. মানিক সরকারকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ