প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষক-কর্মচারীদের সরকারিকরণের সব ধরণেরসুযোগ সুবিধা প্রদানের দাবি

মো. ইউসুফ আলী বাচ্চু: গত ৩১ জুলাইয়ের নীতিমালা প্রজ্ঞাপনে ৬(ঙ) ধারাসংশোধন করে সদ্য সরকারিকরণকৃত কলেজ সমূহেরশিক্ষক-কর্মচারীদের সরকারিকরণের সব ধরণেরসুযোগ সুবিধা প্রদানের দাবি জানিয়েছে সদ্যসরকারিকরণকৃত ২৯০ টি কলেজের ৫৯ বয়সেরসরিকারি সমস্ত সুযোগ-সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষককর্মচারীবৃন্দ।

মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বেসরকারি কলেজ শিক্ষক-কর্মচারীগণের চাকরির সর্বোচ্চ বয়স ৬০ বছর, যেহেতু জাতীয় করণের লক্ষে নিয়োগ,সম্পদ হস্তান্তর ও অর্থ ব্যয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ হওয়ার সময় আমাদের বয়স ৫৯ অতিক্রম করেনি। সেহেতু গত ৩১জুলাইয়ের নীতিমাল প্রজ্ঞাপনে ৬(ঙ) ধারা সংশোধনকরে সদ্য সরকারিকরণকৃত কলেজ সমূহের শিক্ষক-কর্মচারীদের সরকারিকরণের সব ধরণের সুযোগসুবিধা প্রদানে সুব্যবস্থা করাই আমাদের আবেদন।

তারা বলেন, কলেজসমূহ জাতীয়করণের অংশ হিসেবেশিক্ষা মন্ত্রণালয়, মাউশির এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়বিভিন্ন স্মারকের প্রজ্ঞাপনে কলেজের নিয়োগ,স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপকরে। আমরা আশাহত হলাম ৩১ জুলাই নীতিমালাপ্রজ্ঞাপনে ৬(ঙ) ধারা মোতাবেক সরকারি চাকরীরবয়স সীমা ৮ আগস্ট তারিখ হতে কার্যকারি হবে এবংউল্লেখিত তারিখের পূর্বে যাদের সরকারি চাকরির বয়সসীমা অতিক্রম করেছি তাদের অস্থায়ীভাবে নিয়োগগ্রহনযোগ্য হবে না।

তারা আরো বলেন, আমাদের বয়সসীমা ৮ আগস্ট এরপূর্বে ৫৯ বছর অতিক্রম করেছে। আমারা দীর্ঘ ধরেবেসরকারি প্রতিষ্ঠানে নিষ্ঠার সঙ্গে শিক্ষকতার দায়িত্বপালন করছি। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে ৩১ জুলায়েরনীতিমালা প্রজ্ঞাপনে ৬(ঙ) ধারার কারনে আমাদের সবধরণের সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিদ হওয়ায়পরিবার ও সমাজের চোখে হেয় প্রতিপন্ন হয়ে মানসিকভাবে হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠ‌নের আহবায়ক আব্দুল মোত্তা‌লেব,সদস্য এ‌কে এম জয়নাল আ‌বেদীন, আলম মিয়া, আ‌নোয়ার হো‌সেন খান প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ