Skip to main content

গায়ে হাতদিবে নয়ত ব্যাগ থেকে কিছু নিযে যাবে: দৃষ্টি প্রতিবন্ধী পপি

অপু খান : দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এবং বাংলাদেশ ভিজুয়াল ইমপেয়ারড পিপলস সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক নাজমা আরা বেগম পপি বিবিসি বাংলাকে জানান, রাস্তায় খুবই বাজে অবস্থা। বাসে চলা তো খুব রিস্কি। গায়ে হাত দেবে, নয়ত ব্যাগ থেকে কিছু নিয়ে যাবে।এজন্য আমি সিএনজি অথবা উবারের গাড়ি নিয়ে চলি।এতে আমার অনেক খরচ হলেও কিছু করার নেই। পপি অভিযোগ করে বলেন, আইন রেখে কি লাভ যদি বাস্তবায়ন না হয়। আমরা চাই সরকার আমাদের এই দিকগুলো দেখুক আর বেশি করে প্রচার করুক, যেন সাধারণ মানুষ আমাদের বিষয়টা বুঝতে পারে। আসলে মানুষ এতো ব্যস্ত যে আমাদের দুই মিনিট সময় তারা দিতে পারেন না। আপনাদের একটু সাহায্য আমাদের অনেকটা নিরাপত্তা দিতে পারে। তিনি আরো বলেন, আমাদের অধিকার ও সুরক্ষায় আলাদা আইন আছে। এবং সেখানে এসব সেবা নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে। তবে বাস্তবে এসব আইনের কোনো প্রয়োগ নেই। এদিকে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী উজ্জ্বলা বণিক জানান, আমরা চোখে দেখতে পারিনা। এজন্য যদি কারো কাছে সাহায্য চাই তাহলে অনেকেই সেটার বাজে সুযোগ নিয়ে থাকে। রিকশায় উঠতে যাব বা বাসে চড়বো, খুব আপত্তিকরভাবে স্পর্শ করে। একদিন একজনকে বলেছিলাম আমাকে রাস্তা পার হতে যদি সহযোগিতা করতেন, লোকটা আমার হাতে না ধরে দুই বাহুতে স্পর্শ করে। উচ্চশিক্ষা শেষে বাংলাদেশে ভিজুয়াল ইমপেয়ারড সোসাইটি আইটি কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মোহাম্মদ হাসান। তিনি মনে করেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সুরক্ষা আইনের সুষ্ঠু প্রয়োগ সেই-সঙ্গে পাঠ্যপুস্তকে এ সংক্রান্ত বিষয় অন্তর্ভূক্ত করা হলে আজ না হয় কাল এই শহর তাদের স্বাধীনভাবে চলাচলের উপযোগী হয়ে উঠবে। সূত্র:বিবিসি বাংলা