প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মঙ্গলবার যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
প্রতিরক্ষা বিষয়ে সৌদির সঙ্গে সমঝোতা স্মারক হচ্ছে

সমকাল: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবার চার দিনের সফরে সৌদি আরব যাচ্ছেন। সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল-সৌদের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর এ সফর হচ্ছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে যাচ্ছেন। সফরকালে ১৭ অক্টোবর রিয়াদে সৌদি বাদশাহর সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে শ্রম খাত, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও বিনিয়োগ এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ে আলোচনা হবে। বৈঠকে বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে প্রতিরক্ষা ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে পৃথক সমঝোতা স্মারক সই হবে। একই দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের নবনির্মিত নিজস্ব ভবন উদ্বোধন করবেন।

সোমবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব সফর সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিত করেন। এ সময় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক উপস্থিত ছিলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, মঙ্গলবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে রিয়াদের উদ্দেশে রওনা হবেন। ১৭ অক্টোবর সৌদি বাদশাহর সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের আর্থসামাজিক খাতে অর্জিত সাফল্য তুলে ধরবেন এবং দারিদ্র্য ও শোষণমুক্ত জ্ঞানভিত্তিক উন্নত সোনার বাংলা নির্মাণে আগামী দিনগুলোতে বিভিন্ন খাতে সৌদি আরবের আরও বেশি অংশীদারিত্বের উপায় ও কৌশল নিয়ে আলোচনা করবেন। আলোচনায় শ্রম খাত, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, উন্নয়ন সহায়তা, মুসলিম উম্মাহর বৃহত্তর ঐক্য ও সমৃদ্ধি, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতার বিষয় প্রাধান্য পাবে। সফরকালে সরকারি ও বেসরকারি খাতে সহযোগিতা-সংক্রান্ত কয়েকটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হবে বলেও আশা করা হচ্ছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সৌদি সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশের নারী কর্মী ইস্যু নিয়েও কথা হবে।

প্রধানমন্ত্রী ১৭ অক্টোবর রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের নিজস্ব ভবন উদ্বোধন ছাড়াও কাউন্সিল অব সৌদি চেম্বার আয়োজিত বাণিজ্যবিষয়ক সেমিনারে অংশ নেবেন। এদিন রাতে প্রধানমন্ত্রী রিয়াদ থেকে মদিনায় যাবেন। ১৮ অক্টোবর সকালে তিনি মহানবীর (সা.) পবিত্র রওজা মোবারক জিয়ারত করবেন। এর পর তিনি মক্কায় যাবেন এবং পবিত্র ওমরাহ পালন করবেন। মক্কা থেকে প্রধানমন্ত্রী জেদ্দা যাবেন। জেদ্দার কনস্যুলেট ভবনের জন্য সম্প্রতি কেনা জমিতে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন তিনি। ১৯ অক্টোবর সকালে জেদ্দা থেকে বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা রওনা হবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সংবাদ সম্মেলনে রোহিঙ্গা সংকট বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী জানান, চলতি মাসের শেষের দিকে মিয়ানমারের একটি দল বাংলাদেশ সফরে আসবে। তারা কপবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন। এ পর্যন্ত মিয়ানমার আট হাজার রোহিঙ্গার পরিচয় শনাক্ত করে পাঠিয়েছে বলেও জানান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ