প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সেই সিদ্দিকের বিয়ে

সাব্বির আহমেদ : মাসখানেক আগেই ফার্স্ট ক্লাস পেয়ে অনার্স চতুর্থ বর্ষে উত্তীর্ণ হয়েছেন। সরকারি চাকরির পাশাপাশি পড়াশোনাও নিয়মিত চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু হঠাতই বিয়ের পিড়িয়ে বসলেন পুলিশের টিয়ারশেলে চোখ হারানো তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমান।

গতকাল সোমবার নিজ এলাকা ময়মনসিংহে ঘরোয়া পরিবেশে শুভ কাজ সম্পন্ন করেন সিদ্দিক। বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, এতোকিছুর পরেও শুভ কাজটি সম্পন্ন করলাম। নতুন জীবনের জন্য সকলের দোয়া চাই’।

সিদ্দিকুরের নববধু সুমাইয়া একটি কাওমি মাদ্রাসার ছাত্রী। তার বাবা গ্রামের মাদ্রাসা শিক্ষক।

গেল বছর ঢাবি অধিভুক্ত সরকারি ৭ কলেজের পরীক্ষার রুটিনের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেন সিদ্দিকুর রহমান। সেই ঘটনায় কাছ থেকে মারা পুলিশের টিয়ারশেলে মারাত্মক জখম হয় সরকারি তিতুমীর কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে পড়ুয়া সিদ্দিক। পরে একে একে দুইটি চোখের আলো চিরতরে হারায় এই স্বপ্নবাজ তরুণের। এর পরেই তাকে নিয়ে চলে গণমাধ্যমে বিস্তর আলোচনা।

সিদ্দিকুর রহমান সামাজিক রীতি মেনে মাদ্রাসা পড়ুয়া তারই খালাতো বোনকে সোমবার সন্ধ্যায় জীবনসঙ্গী করেন। এই ব্যাপারে সিদ্দিকুরের মা বলেন, ‘আসলে ছেলের ভবিষ্যতের কথা ভেবেই আমি এই মেয়েকে বিয়ে করিয়েছি। বাকিটা জীবন যাতে সুখের হয়- সকলের দোয়া চাই।’

সিদ্দিকুরের বিয়েতে ঢাকা থেকে যান অনেক বন্ধুবান্ধব। সকলে তার শুভ কামনা জানিয়েছেন। তার কলেজের শিক্ষকেরাও সিদ্দিকের বিয়ের খবরে বেশ আনন্দি। সিদ্দিকুর রহমানের নতুন অধ্যায় শুভ হোক- প্রত্যাশা সকলের।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ