প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হরিয়ানায় লস্কর-ই-তৈয়বার টাকায় মসজিদ!

আসিফুজ্জামান পৃথিল : জঙ্গী সংগঠন লস্কর-ই-তৈবার টাকায় মসজিদ বানানো হয়েছে ভারতের হরিয়ানায়। রাজ্যটির গ্রামগুলিতে গরীব মেয়েদের বিয়ে দিতেও দেদারসে টাকা দিচ্ছে হাফিজ সাইদের হাতে গড়া সন্ত্রাসবাদী সংগঠন। ওই মসজিদের ইমামকে জিজ্ঞেসাবাদ করে এ কথা জানতে পেরেছে ভারতের জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ)। সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার দায়ে মসজিদের ইমাম মোহাম্মদ সালমান আর তাঁর দুই সঙ্গীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের নাম মোহম্মদ সেলিম ও সাজ্জাদ আবদুল ওয়ানি।
মসজিদটি বানানো হয়েছে হরিয়ানার পালওয়াল জেলার উট্টাওয়ার গ্রামে। মসজিদটির নাম ‘খুলাফা-ই-রাশিদিন’। ওই মসজিদের ইমাম মহম্মদ সালমনা এনআইএ-কে জানিয়েছেন, লাহোরের একটি বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) ‘ফালাহ-ই-ইনসানিয়াৎ ফাউন্ডেশন (এফআইএফ)’-এর কাছ থেকে তিনি ওই টাকা নিয়েছিলেন। পাকিস্তানের ওই বেসরকারি সংস্থা এফআইএফ চালায় হাফিজ সাইদের হাতে গড়া রাজনৈতিক সংগঠন ‘জামাত-উদ-দাওয়া (জেইউডি)’। লস্কর-ই-তৈয়বা যার ছাতার তলায় রয়েছে। এফআইএফ-এরও নাম রয়েছে সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের তালিকায়।
এনআইএ-র এক পদস্থ কর্তা জানিয়েছেন, হরিয়ানার গ্রামে ওই মসজিদের ইমাম সালমানকে জেরা করে জানা গিয়েছে, দুবাইয়ে থাকার সময় তিনি নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন লস্কর জঙ্গিদের সঙ্গে।
এনআইএ-র সেই কর্মকর্তা বলেছেন, ‘হাফিজ সাইদের দলের চালানো ওই বেসরকারি সংস্থাটি হরিয়ানার উট্টাওয়ার গ্রামে মসজিদটি বানানোর জন্য ইমাম মোহম্মদ সালমানকে ৭০ লাখ রুপি দিয়েছিল। শুধু তাই নয়, মেয়েদের বিয়ে দেওয়ার জন্যেও টাকা দেওয়া হয়েছিল ওই ইমামকে। মসজিদটি এখন কার টাকায় চলছে, আর সেই টাকা কী ভাবে খরচ করা হচ্ছে, এখন আমরা তার তদন্ত করছি।’ ওয়েব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ