Skip to main content

সেলফি তুলতে যেয়ে বিমান দুর্ঘটনা!

আসিফুজ্জামান পৃথিল : অস্ট্রেলিয়ায় এক যাত্রী উড়ন্ত উড়োজাহাজে সেলফি তুলতে গিয়ে ঘটিয়েছেন বিমান দূর্ঘটনা। এ দূর্ঘটনায় নিহত হন ৬ জন। এ অভিযোগ করেছেন বিমান কোম্পানির নতুন মালিক। নতুন মালিক হটেলার জেরি শোয়ার্জ জানিয়েছেন, কোম্পানির সেফটি রেকর্ড নিয়ে তার পূর্ণাঙ্গ আস্থা রয়েছে। ২০১৭ সালের শেষ দিনে ঘটে এ দূর্ঘটনা। এ ঘটনায় পাইলট গ্যারেথ মরগান নিজেও নিহত হন। শোয়ার্জ বলেন এ ঘটনার দায় কোনভাবেই পাইলটের নয়। তার ভুলেই উড়োজাহাজটি হকসব্যারি নদীতে ভেঙে পড়ে, এ ধারণা ভুল। এ যাত্রী সেল্ফি তুলতে গিয়ে পাইলটকে গুতা দেওয়ায় ঘটে এ দূর্ঘটনা। অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যমকে শোয়ার্জ বলেন, ‘তদন্তে প্রমানিত হয়েছে বিমানটি যথেষ্ট নিরাপদ ছিলো। এবং দূর্ঘটনায় পাইলটের দায় ছিলো না। সামনে বসা এক যাত্রী সেলফি তুলতে গিয়ে পাইলটকে কনুই এর গুতা দিয়েছেন। এর ফলেই পাইলট ক্র্যাশ করেন।’ তদন্ত রিপোর্ট বলছে ছবি তোলার সময় সেই যাত্রী কনুই দিয়ে চালকের মাথায় গুতা দেন। এর আগের রিপোর্টে ধারণা করা হয়েছিলো পাইলট দূর্বল এবং অযোগ্য হওয়াতেই নদীতে পরে গিয়েছেন। ৩১ ডিসেম্বর দূর্ঘটনার পর ডুবুরিরা ৪ জানুয়ারি বিমানটি ১৫ মিটার গভীর পানি থেকে উদ্ধার করেন। তদন্ত রিপোর্ট বলছে বিমানটিতে কোন ভয়েস রেকর্ডার কিংবা ফ্লাইট ডাটা রেকর্ডার ছিলো না। আর এ আকারের বিমানে এসব থাকার কথাও নয়। ডেইলি মেইল