প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কুমিল্লায় বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে তরুণকে হত্যা

মাহফুজ নান্টু : বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে মো. সুজন (২০) নামে এক তরুণকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ধারণা করা হচ্ছে মাদক ব্যবসা ও পূর্বশত্রুতার জেরে এই হত্যাকা- ঘটেছে। একটি নির্মাণাধীন ভবনের ৩য় তলায় ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। কুমিল্লা নগরীর বিষ্ণুপুরে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুজন কুমিল্লা চান্দিনা উপজেলার মহিচাইল এলাকার মিজান মিয়ার ছেলে। মিজান মিয়া নগরীর বিষ্ণুপুর মকিম মিয়ার বাড়িতে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকেন। কালিয়াজুড়ি আইনউদ্দিন শাহ মাজারের পাশে তাদের একটি ডেকোরেটরের ব্যবসা রয়েছে। সুজন ডেকোরেটরের কাজ করতেন।

নিহত সুজনের বাবা মিজান মিয়া জানান, সুজন রোববার রাতে দোকান থেকে বাসায় যায়। ভাত খাওয়ার পর বিষ্ণুপুরের মানিক মিয়ার ছেলে তোতা রোবেল সুজনকে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। রাত ১২টার সময় খবর আসে সুজনকে ছুরিকাঘাত করেছে। আমি এবং আমার ছেলেরা ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা ঢাকায় রেফার করে। ঢাকা নেওয়ার পথে সুজন মারা যায়। মারা যাওয়ার সময় সুজন তার নিজ মুখে বলে গিয়েছে, তোতা রোবেল তাকে ছুরিকাঘাত করেছে। রোবেলের যেন গোপন তথ্য সে প্রকাশ করতে না পারে।

মিজান মিয়া আরও বলেন, তার ছেলেকে আরও একবার তোতা রোবেল হত্যার চেষ্টা করেছে। সে সব সময় তার ছেলেকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যেতো।

কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আবদুস ছালাম মিয়া জানান, বিষ্ণুপুরের একটি নির্মাণাধীন ভবনের ৩য় তলায় সুজন নামে এক তরুণকে ছুরিকাঘাত করেছে। পরে সে মারা যায়। প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি তোতা রোবেল নামে এক যুবক সুজনকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এখনও কোন মামলা হয়নি। তবে তোতা রোবেলকে গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা করছে। রোবেলের বিরুদ্ধে থানায় মাদক ও হত্যাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।