প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

#মি টুর কোপে আইসিসির সভা থেকে বাদ ভারতীয় বোর্ডের প্রধান নির্বাহী!

প্রথম আলো : হ্যাশট্যাগ মি টু প্রভাব রাখতে শুরু করছে ক্রিকেটেও। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছিলেন সাবেক এক সহকর্মী। শুক্রবারে ওঠা সে অভিযোগের প্রমাণ এখনো মেলেনি, এ নিয়ে তদন্তও শুরু হয়নি। কিন্তু অভিযোগ ওঠায় আইসিসির সভায় আর যাওয়া হচ্ছে না রাহুল জোহরির। সিঙ্গাপুরে প্রধান নির্বাহীদের বৈঠকে প্রধান নির্বাহী নন, যাচ্ছেন বোর্ডের সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ চৌধুরী।

রাহুল জোহরির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগে ক্রিকেট বোর্ডের সংশ্লিষ্টতা নেই। ২০১৬ সালে বিসিসিআইয়ে যোগ দিয়েছেন জোহরি। এর আগে ভারতীয় মিডিয়াই ছিল তাঁর কর্মস্থল। একের পর এক চ্যানেলে গুরুত্বপূর্ণ সব পদে থাকা এই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন সে সময়কার এক সহকর্মী। কিন্তু বিসিসিআই যে অভিযোগটা গুরুত্ব দিয়ে দেখছে, সেটা শুক্রবারই টের পাওয়া গেছে। প্রশাসক কমিটি (সিওএ) সেদিনই আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে যৌন হয়রানির ঘটনার ব্যাখ্যা চেয়েছে। কিন্তু এর বাইরে আর কোনো শাস্তি বা এর ফলে জোহরির দৈনন্দিন কর্মকাণ্ডে কোনো প্রভাব পড়বে কি না, সেটা বোঝা যায়নি।

১৭ ও ১৮ অক্টোবর আইসিসির সদস্য দেশগুলোর প্রধান নির্বাহীদের বৈঠকে জোহরিরই থাকার কথা ছিল। কিন্তু সিওএর দুই সদস্যের কড়া আপত্তি ও সেই সঙ্গে আইসিসির উচ্চপর্যায়ে এ নিয়ে নেতিবাচক মনোভাব দেখা দেওয়ায় নিশ্চিত হওয়া গেছে, অন্তত এবারের সভায় জোহরির থাকা হচ্ছে না। এক ক্রিকেট কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জোহরির সিঙ্গাপুরে উপস্থিত থাকার প্রসঙ্গটা ‘খুবই অস্বস্তিকর’ হয়ে দাঁড়িয়েছিল।

টুইটারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নারীর অভিযোগেই এমন তোলপাড় উঠেছে। কর্মক্ষেত্রে হয়রানির জন্য বিসিসিআই এ বছরের এপ্রিলেই অভ্যন্তরীণ অভিযোগ কমিটি গঠন করেছে। কারিনা ক্রিপালানি (আইনজীবী), সাবা করিম (জিএম), রূপবতী রাও (হিসাব বিভাগ) ছাড়াও এখানে বহিরাগত সদস্য হিসেবে আছেন নারী অধিকার নিয়ে কাজ করেন এমন এক আইনজীবী বীণা গোদা।

এ নিয়ে গত ১৮ মাসে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তিনটি যৌন হয়রানির অভিযোগ সামলাতে হচ্ছে বিসিসিআই ও সিওএকে। জোহরির নাম এর মধ্যে ছিল । তবে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না, আগের দুটি অভিযোগও জোহরির বিপক্ষে ছিল কি না কিংবা আগের দুটি অভিযোগ এই নারীরই করা ছিল কি না। বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ডের সর্বোচ্চ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, অভ্যন্তরীণ অভিযোগ কমিটির জন্য প্রতিষ্ঠার বছরেই এটি বড় কঠিন এক চ্যালেঞ্জই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ