প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কুড়িগ্রামে হানিফ পরিবহনের কাউন্টারে ছাত্রলীগের তালা

বাংলা ট্রিবিউন : ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হানিফ পরিবহনের মালিক হানিফকে দেশে ফিরিয়ে এনে শাস্তির দাবিতে হানিফ পরিবহনের কুড়িগ্রাম কাউন্টার বন্ধ করে দিয়েছেন কুড়িগ্রাম ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

আজ সোমবার সকাল ১১টার দিকে শহরের ঘোষপাড়ায় হানিফ পরিবহনের কাউন্টারের ম্যানেজার নুরু মিয়া ছাত্রলীগ কর্মীদের দাবির মুখে কাউন্টারে তালা লাগিয়ে দেন।

জেলা মোটর মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান বকসী এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ‘গতকাল রবিবার রাতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়ে ছাত্রলীগের একটি গ্রুপের কর্মীরা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হানিফ পরিবহন বন্ধের দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি দেন। ২৪ ঘণ্টা না যেতেই সোমবার সকাল ১১টায় হানিফ কাউন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয় বলে কাউন্টারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে মোটর মালিক সমিতির এই নেতা জানান, ‘হানিফ পরিবহন বন্ধ করা নিয়ে আমাদের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছি। কেন্দ্র থেকে হানিফ পরিবহন বন্ধের বিষয়ে কোনও ধরণের নির্দেশনা নেই। এ নিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় মোটর মালিক পক্ষের মিটিং ডাকা হয়েছে। মিটিংয়ের পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

হানিফ পরিবহনের কুড়িগ্রাম কাউন্টার ম্যানেজার নুরু মিয়া জানান, ‘হানিফ পরিবহনে কয়েক হাজার শ্রমিক চাকরি করে জীবিকা নির্বাহ করছে। মালিক দোষ করলে আইনের আওতায় তার বিচার হবে। আমরা সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ। কাউন্টারে চাকরি করে সংসার চালাই। আমাদের অপরাধ কোথায়? গাড়ি না চললে আমরা পরিবার নিয়ে পথে গিয়ে বসবো।’

হানিফ কাউন্টার বন্ধ করে দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রকিবুজ্জামান রাকিব জানান, ‘হানিফ পরিবহনের মালিক হানিফ ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। ছাত্রলীগ সাধারণ ছাত্রদের নিয়ে কাউন্টার বন্ধ করে দিয়েছে। সে (হানিফ) দেশে ফিরে এসে আত্মসমর্পণ না করা পর্যন্ত তার মালিকানাধীন পরিবহন সড়কে চলতে দেওয়া হবে না।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ