Skip to main content

জাতীয় ঐক্য মানে কি? কার স্বার্থে?

ড. রফিকুল ইসলাম তালুকদার: কতিপয় মোস্তাকের ব্যাক্তিগত ক্ষোভ, হতাশা ও অভিলাষ থেকে এর জন্ম।এর  কোনো আদর্শিক বা নৈতিক ভিত্তি নেই। এটি জাতীয় ঐক্যত নয় বরং কতিপয় মোস্তাকের সাথে সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীর একটি মেল বন্ধন।
কেউ কেউ ড. কামালের বিরোধী দলীয় ঐক্যের প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানিয়েছেন। কিন্তু তারা 'জাতীয় ঐক্য' শব্দটি ব্যবহার করলেন কেন! জাতীয় ঐক্য কোথায় পেলেন, সেরূপ ঐক্য হতে হলেতো সর্বদলীয় ঐক্য হতে হবে।
জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠাকে এই ফ্রন্টের মূল লক্ষ্য হওয়া উচিত বলে আসিফ নজরুল মনে করেন। কিন্তু নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে, বিরোধী দল ও তার জোট জনগণের ভোটের অধিকার খর্ব করেছে।
আর ২১আগস্টের গ্রেনেড হামলার মামলার রায়ের পর এই জোট একটি সন্ত্রাসবাদী দলের ঐক্যজোটে পরিণত হল এবং এর শুরুর আগেই ভাঙ্গনের আওয়াজ পাওয়া গেল।
সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতারত অবস্থায় কেউ কেউ রাজনীতির অধিকার পেয়ে গেলেন। তাও আবার সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী স্বার্থের ঐক্যে অনুপ্রেরণা দান ও অনুঘটকের ভূমিকায়।
আর ২১ আগস্ট হামলার মামলার রায়ে প্রতিষ্ঠিত একটি সন্ত্রাসবাসী দলের সাথে ঐক্য প্রতিষ্ঠার পিছনের মূল শক্তিটাত কিছু মোস্তাক চরিত্র। এরাতো একসময় আওয়ামীগের একনিষ্ঠ কর্মী ও বড় নেতা ছিলেন, এমনকি ছাত্রলীগ করে আসা।কিন্তু উনারা ভুলে গিয়েছেন বাংলার ইতিহাসে মোস্তাক ও মীরজাফরদের করুন পরিণতি ও জাতির সহস্র কোটি ধিক্কারের কথা। ধিক সকল লোভী ও বিশ্বাসঘাতক মোস্তাক-মীরজাফরদের। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।
পরিচিতি: আহবায়ক, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, সুনামগঞ্জ জেলা, এবং গবেষক, রাজনৈতিক বিশ্লেষক, কলাম লেখক ও রাজনীতিক।অধিকন্তু তিনি সুনামগঞ্জ-১ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী।

অন্যান্য সংবাদ