প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ষষ্ঠীতে বোধনের মধ্য দিয়ে শুরু হলো শারদীয় দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিকতা

 

কান্তা আইচ রায় : ষষ্ঠীতে বোধন দিয়ে শুরু হলো হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গোৎসব। পঞ্জিকা অনুসারে রোববার সন্ধ্যায় পঞ্চমী তিথি শেষে শুরু হয় মহাষষ্ঠী। সকালে বোধন আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে ষষ্ঠীবিহিত পূজা। দিনভর চণ্ডিপাঠে মুখর থাকবে সবগুলো মণ্ডপ।

ফুল, ধুপ-ধুনুচি, পঞ্চপ্রদীপ, উলুধনি, শঙ্খ, ঢাক-ঢোল বাজিয়ে নানা উপচারের ডালা সাজিয়ে, আচার-আনুষ্ঠানিকতায় এই বোধনেই প্রাণ প্রতিষ্ঠা পায় মৃন্ময় প্রতীমায়। অশুভ শক্তির বিনাশে ‘মঙ্গলময়ী’ দেবীর জাগরণে জগতে সুর শক্তি প্রতিষ্ঠার প্রার্থনা করেন ভক্তরা।

হিন্দু পুরাণ অনুযায়ী রাবনবধের জন্য নির্ধারিত সময়ের আগে শরৎকালে দেবী দুর্গার পূজা করেছিলেন রামচন্দ্র। অকালে দেবী দুর্গার পূজা করার জন্যই এর নাম অকালবোধন।

সনাতন হিন্দু ধর্মালম্বীদের বিশ্বাস, দশভূজা দেবী দুর্গা অসুর বধ করে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য প্রতি বছর শরৎ কালে কৈলাসধাম ছেড়ে মর্ত্যলোকে আসেন। ১৫ দিন কাটিয়ে আবার ফিরে যান কৈলাসে। দুর্গতি নাশিনী দেবী দুর্গার আগমনে উচ্ছ্বসিত ভক্তকুল। পূজা শেষে ছিল অঞ্জলি ও প্রসাদ বিতরণ।

আগামীকাল মঙ্গলবার মহাসপ্তমী, বুধবার মহাঅষ্টমী ও কুমারী পূজা, বৃহস্পতিবার মহানবমী ও বিহিত পূজা এবং শুক্রবার বিজয়া দশমী ও দর্পণ বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা।

এদিকে, যেকোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে কড়া নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে মন্দির ও মণ্ডপগুলোতে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে থাকছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ