প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাতাল অবস্থায় একটি পুরো হোটেলই কিনে ফেললো ব্রিটিশ দম্পতি

মাহাদী আহমেদ : অতিরিক্ত মাতাল হয়ে নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মানুষ অনেক সময়েই বেশ উদ্ভট কাজকর্ম করে ফেলে, কিন্তু মাতাল হয়ে একটি পুরো হোটেল কিনে ফেলার মতো ঘটনা বিশ্বে খুবই বিরল। তবে বিরল হলেও এমন ঘটনাই ঘটেছে শ্রীলঙ্কায়।

শ্রীলঙ্কায় হানিমুনে ঘুরতে এসে মাতাল অবস্থায় পুরো একটি হোটেল কিনে ফেলেছে এক ব্রিটিশ দম্পতি। লন্ডনের অধিবাসী মার্ক লি ও জিনা লিওন্স গত বছরের ডিসেম্বরে ঘটিয়েছেন বিস্ময়কর ও উদ্ভট এ ঘটনা। নববিবাহিত এ দম্পতি তাদের হানিমুন উদযাপনে গত বছর ৩ সপ্তাহের ভ্রমনে শ্রীলঙ্কা আসে।

সেখানে তারা ত্যাঙ্গেলে’র একটি বিচ হোটেলে অবস্থান নেয়। সেখানে প্রথম রাত উদযাপনের সময় তারা ১২ গ্লাস রাম পান করে। পান করার পর তারা হোটেল কর্তৃপক্ষের সাথে কথাবার্তায় জানতে পারে যে হোটেলটি বর্তমানে যিনি লিজ নিয়েছিন, তার মেয়াদ প্রায় শেষ।

এ কথা শুনে তাদের মাথায় হঠাৎই চিন্তা আসে হোটেলটি কেনার। হোটেলটি ৩ বছর মেয়াদে লিজ নিতে গেলে তাদের প্রদান করতে হবে ৩৯ হাজার ৫৭৬ ডলার। কিস্তিতে নিলে প্রতি বছরে দিতে হবে ১৩ হাজার ২০০ ডলার।

এ প্রসঙ্গে লিয়ন্স জানায়, ‘এক বছরে মাত্র ১৩ হাজার ২০০ ডলার দিতে হবে শুনে আমি ও মার্ক খুবই খুশি হয়েছিলাম, আমরা ভেবেছিলাম এটা খুবই লাভ জনক হবে। কারণ সে সময়ে আমরা বেশ মাতাল ছিলাম।’

সে আরও বলে, ‘হোটেলটি লিজ নেওয়ার আলোচনায় কর্তৃপক্ষের অনেক কথাই আমরা ঠিকমত বুঝতে পারছিলাম না, কারণ তারা অনেক কিছুই তাদের স্থানীয় ভাষায় বলছিলো। তখন আমরা বসে বসে আরও রাম পান করছিলাম ও আরও বেশি মাতাল হয়ে পড়ছিলাম। পরে কর্তৃপক্ষের কথা বুঝতে আমাদেরকে আমাদের বন্ধুদের সাহায্য নিতে হয়েছিলো। এর পর আমরা আলোচনা করে ১৯ হাজার ৭৮৮ ডলারের দুই কিস্তিতে মোট ৩৯ হাজার ৫৭৬ ডলারে হোটেলটি ৩ বছরের জন্য কিনে নেই। কিন্তু এত বড় একটি আর্থিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের পর আমরা চিন্তিত হয়ে পড়ি যখন আমরা জানতে পারি যে আমি সন্তান সম্ভবা। আমরা বিয়ের সময় অনেক অর্থ ঋণ নিয়েছিলাম। কিন্তু হোটেলটি কেনার পর আমরা চিন্তায় পড়ে যাই যে এখান থেকে আমরা আমাদের বিনিয়োগ করা অর্থ ফিরে পাবো কিনা। তবে আমরা তখন এমন একটি অবস্থায় ছিলাম যে, হয় ডুবো নয়তো সাতরাও। তখন আমরা সিদ্ধান্ত নেই যে আমাদেরকে এটাতে সফল হতেই হবে।’

অতঃপর, দম্পতিটি ৭ বেডরুমের হোটেলটি ৮ হাজার ডলার খরচ করে নতুন করে সাজিয়ে পুনরায় খোলে। হোটেলটির নাম তারা পরিবর্তন করে রাখে ‘লাকি বিচ তাঙ্গেল’। বর্তমানে তাদের হোটেলটিতে বেশ ভালোই ব্যবসা হচ্ছে। তবে তার জানায় যে, ভবিষ্যতে আর কোনও সিদ্ধান্ত তারা এভাবে অপ্রস্তুত ভাবে নিবে না, ধীরস্থির ভাবে ভেবে-চিন্তে নেবে। – ফক্স নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ