প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌদি বিনিয়োগ সম্মেলন বর্জন যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের
ট্রাম্পের হুমকিতে সৌদি শেয়ারের দরপতন

নূর মাজিদ/ রাশিদ রিয়াজ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সৌদি আরবের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার জের ধরে ধ্বস নেমেছে সৌদি পুঁজিবাজারে। গতকাল রোববার সকলা থেকেই সৌদি শেয়ারগুলোর দাম তাদের স্বাভাবিক প্রবৃদ্ধি হারিয়ে তুলনামূলক দুর্বল হয়ে পড়েছে। সিয়াটল টাইমস জানায়, রিয়াদের টাডাউল পুঁজিবাজারে এদিন স্বাভাবিক কার্যদিবসের চাইতে ৬ শতাংশ কম শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

রোববার স্থানীয় সময় বেলা ১২টা নাগাদ বাজারটিতে নিবন্ধিত মোট ১৮৬টি বৃহৎ কো¤পানির মধ্যে ১৮২টির শেয়ারেই দরপতন অব্যাহত ছিল। ভিন্ন মতালম্বি সাংবাদিক জামাল খাশোগজি নিখোঁজে সৌদি ভ’মিকার প্রমাণ পেলে দেশটির বিরুদ্ধে যেসব ব্যবস্থা নেয়া হবে তার আওতায় যুক্তরাষ্ট্রে সৌদি বিনিয়োগ ক্ষতিগ্রস্ত বা বাজেয়াপ্ত করা হতে পারে এমন আশংকায় এই দরপতন হয়েছে। গতকাল রোববার সপ্রচারিত সিবিএস টিভির সিক্সটি মিনিট অনুষ্ঠানে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্ সৌদি আরবকে অভিযোগ প্রমাণিত হলে কঠিন শাস্তি দেয়ার কথা বলেন। সৌদি আরবের বিরুদ্ধে সাংবাদিক খাশোগিকে তাদের কূটনীতিক মিশনে নারকিয় কায়দায় হত্যার অভিযোগ করেছে তুরস্ক। এই সংক্রান্ত তথ্যপ্রমাণ এখন মার্কিন সিনেট কমিটির কাছেও রয়েছে।

এদিকে খাশোগজি অন্তর্ধানের কারণে সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলন বয়কট করার কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য। দেশদুটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়য়ের সূত্রে এই বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে বিবিসি। মূলত রিয়াদে অনুষ্ঠেয় ঐ সম্মেলনে সৌদি আরবের উচ্চাভিলাষী নিওম প্রকল্পে বিনিয়োগ নিয়ে এই সম্মেলনের আয়োজন। এই উচ্চাভিলাষী প্রকল্পকে পশ্চিমারা মরুভূমিতে আরেকটি ডাভোস নগরী গড়ে তোলার সঙ্গে তুলনা করেছেন। এই প্রকল্পকে সৌদি আরবের জাতীয় তহবিল উজাড় করার মতো উচ্চাভিলাষী ‘শ্বেত হস্তি’ প্রকল্প বলে সমালোচনা করেছিনলেন জামাল খাশোগজি। নিখোঁজ হওয়ার কয়েক মাস পূর্বেই এই ধরণের প্রকল্প বাস্তবায়নের পরিকল্পনার পেছনে ক্রাউন প্রিন্সের প্রজ্ঞা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন।

এদিকে খাশোগজি নিহতের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন আইএফএম প্রধান ক্রিসচিয়ান লাগার্দে। তবে এতদস্বত্বেও চলতি মাসে সৌদি আরবের বিনিয়োগ সম্মেলনে যোগ দেবেন তিনি। ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে আইএফএম এর বাৎসরিক বৈঠকে অংশ নিয়ে গত শনিবার তিনি এমন কথা জানিয়েছেন।

এই সম্মেলনে জেপিমরগ্যান চেজ’এর সিইও জেমি ডিমন, ব্ল্যাকরক-এর চেয়ারম্যান ল্যারি ফিঙ্ক ও যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিভ মনুচিনসহ বিশ্বের শীর্ষ ব্যবসায়ী নেতাদের যোগ দেয়ার কথা রয়েছে। এ সম্মেলনে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ফিনান্সিয়াল টাইমস তাদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এক টুইট বার্তায় ফিনান্সিয়াল টাইমসের হেড অব কম্যুনিকেশন ফিনোলা ম্যাকডোনেল বলেন, খাসোগজির হত্যায় গ্রহণযোগ্য ব্যাখ্যা সৌদি আরব না দেয়া পর্যন্ত আমরা ওই সম্মেলনে যোগ দেয়া থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। একই সম্মেলন থেকে মিডিয়া পার্টনারশিপ বাতিল করেছে সিএনএন। তাদের উপস্থাপক ও রিপোর্টার ওই সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন না। এছাড়াও, সম্মেলনের মিডিয়া স্পন্সরশিপ প্রত্যাহার করেছে ব্লুমবার্গ।  সম্মেলন থেকে নিজেদের প্রতিনিধি অ্যান্ড্রু রস সরকিনকে প্রত্যাহার করেছে নিউ ইয়র্ক টাইমস। সিয়াটল টাইমস/ বিবিসি/ নিউ ইয়র্ক টাইমস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ