Skip to main content

ভারতের প্রযুক্তিখাতের শীর্ষ নেতৃত্বে নারীরা

রাশিদ রিয়াজ: ভারতে উদ্যোক্তাদের মধ্যে নারীদের হার ৮ থেকে ১০ ভাগ হলেও এ চিত্র তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে আমূল পরিবর্তন করতে চাচ্ছে দেশটির সরকার ও খাতটির সংশ্লিষ্টরা। ব্যাপক কর্মসংস্থানের জন্যে এধরনের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রে নারী উদ্যোক্তাদের হার ৩৯ ভাগ এবং আগামী ৩ থকে ৪ বছরের মধ্যে এ হারকেও অতিক্রম করবেন ভারতীয় নারী উদ্যোক্তরা। সিএনএনদিল্লিতে ন্যাসকমের ভাইস প্রেসিডেন্ট কেএস বিশ্বনাথন বলেন, নারীদের প্রযুক্তিখাতের নেতৃত্বে আনতে ব্যাপকভিত্তিক পরিকল্পনার বাস্তবায়ন চলছে। ভারতে ফেসবুক একই লক্ষ্যে কাজ করছে। ফেসবুকের ভারতীয় অংশীদার সত্যজিত সিং বলেন, গত বছর ভারতের ২৪টি শহরে ১৭০ জন নারী উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। ফেসবুকের এক সমীক্ষা বলছে ভারতে ৫ জন নারীর একজন উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী। গুগলও ভারতে নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে বিভিন্ন ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। অন্তত ৫ হাজার নারীকে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। হেলপারফরইউ’এর সিইও মিনাক্ষী গুপ্ত জৈন বলেন, নারীদের লক্ষ্যই হচ্ছে কিভাবে তারা উদ্যোক্ত হবেন। এজন্যে স্বল্প মেয়াদ থেকে দীর্ঘ মেয়াদে এমবিএ প্রশিক্ষণ পাচ্ছেন নারীরা। ম্যাককিনসে’র এক প্রতিবেদন বলছে, নারীদের উদ্যোক্তা বা কাজের প্রতি তাদের যে বৈষম্য রয়েছে তা দূর করার মাধ্যমে অর্থনীতিতে ৭৭ হাজার কোটি মার্কিন ডলার যোগ করার এক মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে আর এ লক্ষ্যেই নারীরা প্রযুক্তিখাতের হাল ধরতে যাচ্ছেন।

অন্যান্য সংবাদ