Skip to main content

ধোঁয়াবিহীন তামাকজাত পণ্যের স্ট্যান্ডার্ড প্যাকেট প্রবর্তনের দাবি 

মো. ইউসুফ আলী বাচ্চু: ধোঁয়াবিহীন তামাকজাত পণ্যের স্ট্যান্ডার্ড প্যাকেট প্রবর্তনের দাবি জানিয়েছে তামাকবিরোধী সংগঠনগুলো। রোববার (১৪ অক্টোবর) সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে আই দাবি জানায় ট্যোবাকো কন্ট্রোল অ্যান্ড রিসার্চ সেল, ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ডাব্লিউবিবি ট্রাষ্ট ও বাংলাদেশ তামাকবিরোধী জোট। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ধোঁয়াবিহীন তামাক পণ্যের ( জর্দা ও গুল) মোড়কে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্ক বাণী কাজ করছে কিনা তা পর্যবেক্ষণের জন্য টিসিআরসি একটি গবেষণা চালিয়েছে। গবেষণায় দেখা যায়, অধিকাংশ তামাক সেবনকারী তামাক পণ্য ক্ষতিকর জানলেও তাদের ৯৬ শতাংশই তামাক ব্যবহারের ফলে সৃষ্ট ঝুকির বিষয়ে জানেন না। তামাকজাত দ্রব্যের মোড়কে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী থাকলেও প্রায় ৭৭ শতাংশ সেবনকারীর ছবি সম্পর্কে ধারণা কম। ধোঁয়াবিহীন তামাক পন্যের কৌটার আকার এবং তাতে প্রদত্ত ছবির আকার অত্যন্ত ছোট এবং অস্পষ্ট হওয়ায় সাধারণ মানুষের বোধগম্য হচ্ছে না। বক্তারা আরও বলেন, ধোঁয়াবিহীন তামাক ব্যবহারকারীদের অধিকাংশই নিম্নবিত্ত এবং অক্ষর জ্ঞানহীন, তাই মোড়কের গায়ে লিখিত স্বাস্থ্য সতর্ক বাণী তাদের সতর্ক করতে ব্যর্থ। এক্ষেত্রে সবচেয়ে কার্যকর সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণীর সঠিক প্রণয়ন যা শুধুমাত্র স্ট্যান্ডার্ড প্যাকেটেই সম্ভব। বর্তমানে বিশ্বের ১০৫টি দেশে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী প্রণয়ন করেছে এবং এটি তামাক নিয়ন্ত্রনে কার্যকরী পদ্ধতি হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। তাই মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ধোঁয়াবিহীন তামাকজাত পণ্যের আদর্শ মোড়ক প্রবর্তন করা অতি জরুরি। মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সংগঠ‌নের সহ-সভাপ‌তি ‌সৈয়দা আফাউর রহমান, তামাক বি‌রোধী সংগঠ‌নের সদস্য শুভ, ম‌নির উদ্দিন প্রমুখ।