প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুদক তলব করলেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অভিযুক্তরা!

হ্যাপি আক্তার : জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তলব করলেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অভিযুক্তরা। গত তিন মাসে অর্ধশতাধিক হাই প্রোফাইল ব্যক্তি অসুস্থতার ডাক্তারি সনদ দেখিয়ে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ এড়িয়ে যাচ্ছেন। জিজ্ঞাসাবাদে আসার মতো শারীরিক অবস্থা থেকেও যারা হাজির হচ্ছেন না তাদের বিরুদ্ধে দেওয়া হবে আইনি ব্যবস্থা বলছে দুদক। পাশাপাশি মিথ্যা মেডিকেল সনদ দেওয়া হলে আইনের আওতায় আনা হবে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকেও।

বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে গত ১৮ সেপ্টেম্বর দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে হাজির হওয়ার কথা ছিল জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের। জিজ্ঞাসাবাদের ঠিক আগের দিন দুদকে চিঠি পাঠিয়ে নিজেকে অসুস্থ বলে দাবি করেন তিনি। দুদকের কাছে অসুস্থ বলে দাবি করলেও ১৯ সেপ্টেম্বর তাকে দলীয় কাজে ব্যস্ত থাকতে দেখা যায়।

ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগে তিতাসের সদ্য বিদায়ী ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর মশিউর রহমানের গত পহেলা অক্টোবর দুদকে জিজ্ঞাসাবাদে হাজির হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওই দিনই অসুস্থ বলে দুদকে চিঠি পাঠান তিনি। নিজেকে অসুস্থ দাবি করলেও ওই দিনই অফিস করার তথ্য রয়েছে দুদকের কাছে।

৩০ সেপ্টেম্বর দুদকে হাজির হওয়ার কথা ছিল পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী সোহেলিয়া রত্নার। জিজ্ঞাসাবাদের আগমুহূর্তে তারাও অসুস্থ দাবি করে দুদকে চিঠি পাঠান।

এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে দুদকের তলবে হাজির হননি বিএনপি নেতা এম মোরশেদ খান, তার সন্তান ফয়সাল মোরশেদ খান, বিএনপি নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, বিকল্প ধারার মহাসচিব এম এ মান্নান, পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ হাশেম, লে মেরিডিয়ানের স্বত্ত্বাধিকারী আমিন মোহাম্মদসহ অর্ধশতাধিক হাইপ্রোফাইল ব্যক্তি।

জিজ্ঞাসাবাদে না এসে অসুস্থতার কথা বলা হলেও কয়েক জনের বিরুদ্ধে, রাজনৈতিক বা অন্যান্য কাজে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণের তথ্য পেয়েছে দুদক। দুদক বলছে, আজুহাত দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে না এলে থেমে থাকবে না তদন্ত। মেডিকেল সনদে মিথ্যা তথ্য দেওয়া হলেও নেওয়া হবে আইনি ব্যবস্থা বলেও জানান দুদক

দুর্নীতি দমন কমিশনের মহাপরিচালক মুনীর চৌধুরী বলেন, কেউ যদি মনে করে দুদককে ফাঁকি দিয়ে আইনের হাত থেকে বাঁচতে পারবে, তাহলে তার ধারণা ভুল। অভিযুক্ত ব্যক্তি যদি জিজ্ঞাসাবাদে না আসে তাহলে আমরা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর মাধ্যমে তাদের আইনের আওতায় আনবো।’

তিনি বলেন, অসুস্থ না হয়েও কারা অভিযুক্তদের ভুয়া মেডিকেল সনদ দিচ্ছে তার একটি তালিকা আমরা তৈরি করছি। তাদের বিরুদ্ধেও আমরা আইনি ব্যবস্থা নিবো। আইনের আওতা থেকে কেউ মুক্ত নয়।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন,সুস্থ থাকা সত্তেও অসুস্থতার অজুহাতে জিজ্ঞাসাবাদে যারা হাজির হননি তাদের বিরুদ্ধে দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেবে দুদক। সূত্র : ডিবিসি নিউজ