প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিশুদের ব্যবহার করে ইলিশ নিধন চলছে

সাজিয়া আক্তার : নিষেধাজ্ঞার মধ্যে নতুন কৌশলে মা-ইলিশ নিধন চলছে ভোলার মেঘনা-তেঁতুলিয়ায়। প্রশাসনিক নজরদারি আর আইনি জটিলতা এড়াতে প্রাপ্ত বয়স্কদের পরিবর্তে ইলিশ ধরার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে শিশুদের। এসব শিশুদের আটক করতে গিয়েও বিড়ম্বনায় পড়তে হয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীকে। তবে এসব অপকৌশলে আশ্রয় নেওয়া অভিভাবকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানালেন জেলা প্রশাসক। সূত্র : সময় টেলিভিশন

নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই ভোলা সদর উপজেলার মাঝের চরে ইলিশ ধরছে শিশুরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দুই ভাইকে আটক করলেও কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেনি কেবল অল্প বয়স থাকার কারণে। অভিযানের প্রথম পাঁচ দিনে জেলায় যারা আটক হয়েছে তাদের প্রায় অর্ধেকই শিশু, যাদের নামমাত্র জরিমানা ও মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

জেল-জরিমানামুক্ত থেকে ইলিশ শিকারের জন্য এমন কৌশলে শিশুদের ব্যবহার করছেন অভিভাবকরা। প্রাপ্ত বয়স্ক জেলেরা নদীতে জাল ফেলার পর গ্রেফতার এড়াতে শিশুদের রেখে তীরে চলে যায়। আবার এই শিশুদের সহায়তায় নির্দিষ্ট সময় জাল তোলে নেওয়া হয়। এমন অবস্থায় শিশুদের নিরুৎসাহিত করতে জেলা প্রশাসকের নেত্রিতে নদী ও জেলে পল্লিতে চলছে সচেতনতামুলক প্রচার অভিযান।

শিশুদের ইলিশ শিকারের কারণে অভিযান পরিচালনা চেলেঞ্জিং উল্লেখ করে মৎস্য কর্মকর্তা বলেন এর পরো অভিযান সফল করতে তাদের চেষ্টা অব্বাহত রয়েছে।

ভোলা সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান বলেন, আমরা আশা করছি এই অভিযানে সফল হব। শিশুদের ঝুঁকিপূর্ণ পেশা, নিষেধাজ্ঞা সময়ে মাছ ধরা, এটা থেকে তারা বিরত থাকে তার সর্বাত্মক চেষ্টা আমরা করবো।

সচেতনা বৃদ্ধিতে প্রচার প্রচারণা বাড়ানোর পাশাপাশি শিশুদের দিয়ে এমন অপকৌশল গ্রহনকারী অভিবাকদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানালেন জেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা।

সর্বাধিক পঠিত