প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ম্যাচের আগে ২০বার টয়লেটে যেতেন মেসি: ম্যারাডোনা

স্পোর্টস ডেস্ক: অধিনায়ক মেসির অধীনে এই মৌসুমে এগিয়ে চলেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা। তবে, আর্জেন্টিনাকে সেভাবে টেনে নিতে পারেননি অধিনায়ক মেসি-এমনটি মনে করেন দেশটির কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনা। তার মতে, আর্জেন্টিনার অধিনায়ক হিসেবে মেসিকে নেতৃত্ব দেওয়াটা ছিল বোকামি। জাতীয় দলের ম্যাচের আগে অধিনায়ক মেসির আচরণ নিয়েও সন্তুষ্ট নন বিশ্বকাপ জয়ী ফুটবলের জাদুকর ম্যারাডোনা।

যদিও ম্যারাডোনার এই মন্তব্যকে অনেকেই বাঁকা চোখেই দেখছেন। ব্রাজিল বিশ্বকাপে অধিনায়ক মেসির নেতৃত্বেই ফাইনাল উঠেছিল আর্জেন্টিনা। এরপর টানা দুই কোপা আমেরিকার আসরে অধিনায়ক মেসিই দলকে ফাইনালে তুলেছিলেন। ব্রাজিল বিশ্বকাপে জার্মানি আর কোপা আমেরিকার ফাইনালে দুবারই চিলির কাছে হেরে যায় মেসির দলটি। এরপর আন্তর্জাতিক ফুটবলকে অভিমান করেই বিদায় বলে দেন মেসি। পরে আবারো ফিরেছেন। রাশিয়া বিশ্বকাপে তার অধীনেই খেলেছে আর্জেন্টিনা, যদিও কোয়ার্টার ফাইনালের আগেই তাদের বিদায়ঘণ্টা বাজে।
১৯৮৬‘র বিশ্বকাপ জয়ী তারকা ম্যারাডোনা আর্জেন্টিনা জাতীয় দল এবং মেসির অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি জানান, নম্বর ১০ নিয়ে আমার কিছু কথা আছে। আমি কথা বলতে চাই মেসির অধিনায়কত্ব নিয়ে। জাতীয় দলের কোনো ম্যাচের আগে মেসিকে সতীর্থদের সঙ্গে আলোচনা করতে দেখা যায় না, তাকে দেখা যায় প্লে­স্টেশনে গেম খেলতে। তার এই আচরণই তো বলে দেয় তাকে অধিনায়কত্বের ভার দেওয়া সত্যিকারের বোকামি।
ম্যারাডোনা আরও জানান, আমার জন্য এটা নিয়ে কথা বলা কঠিন। শুনতে খারাপ লাগলেও বলছি, ম্যাচের আগে যে খেলোয়াড় ২০বার টয়লেটে যায়, তাকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেওয়া সঠিন সিদ্ধান্ত নয়। তার অধিনায়কত্ব সেখানেই তো বড় প্রশ্ন তুলে দেয়। বার্সার মেসি আর আর্জেন্টিনার মেসি পুরোপুরি আলাদা। মেসিকে আর্জেন্টিনার হয়ে আর সেভাবে খেলতে দেখতে চাই না। চাপ থেকে মুক্ত হয়ে তাকে খেলতে দেখতে চাই।
আপাতত জাতীয় দলের বাইরে মেসি। স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েছেন। সেই সুযোগে কদিন আগেই ম্যারাডোনা বলেছিলেন জাতীয় দলে মেসির ফেরার আর দরকার নেই। তাতে দেশটির ফুটবল ফেডারেশনের কর্তা-ব্যক্তিরা বুঝবেন মেসির অভাবটা। ম্যারাডোনা ফেডারেশনের সমালোচনা করার পাশাপাশি জানালেন, মেসির কাছ থেকে ফেডারেশনের অধিনায়কত্বের দায়িত্বটা নিয়ে নেওয়া দরকার। মেসির থেকে দায়িত্ব নিয়ে অন্য কাউকে দেওয়া উচিত। আমরা মেসিকে মেসির মতোই পেতে চাই, যা সে হতে পারেনি।
বিশ্বকাপের পর মেসিকে ছাড়া আর্জেন্টিনা তিনটি ম্যাচ খেলেছে। গুয়েতামালাকে ৩-০ গোলে হারানোর পর দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা কলম্বিয়ার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে। সদ্যই ইরাকের বিপক্ষে ৪-০ গোলে জিতেছে মেসিহীন আর্জেন্টিনা। আগামী ১৬ অক্টোবর পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের বিপক্ষে মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত