প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কুবির মেধাবী মুখ মেহেদী বাঁচতে চায়

আবু বকর রায়হান, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগে সদ্য ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান। ভবিষ্যতে সাংবাদিকতার মাধ্যমে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা নিয়ে এ বিভাগে ভর্তি হয়। কিন্তু নিয়তির কি নির্মম পরিহাস। দুরারোগ্য (সাইনোভিয়াল সারকোমা) ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে সেই ছেলেটিই আজকে অসহায় হয়ে আছে।

সংসারে বাবা না থাকায় নিজের টিউশনির টাকা দিয়ে পড়ালেখা চালিয়েছে এতদিন। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার আগেই বাম পায়ের উরুতে টিউমারের জন্য অপারেশন করা হয়েছিল। অনেক কষ্টে টিউশনির টাকায় অপারেশন করিয়েছিল ছেলেটা। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি, সেই টিউমার থেকেই ক্যান্সার হয়ে যায়। জীবন সংগ্রামে এতদূর এসে মনে হয় এবার দমে যেতে হবে তার।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার পর একই জায়গায় আবার টিউমার হয়। ক্যাম্পাসে যখন সবাই আড্ডা আর গানে সময় পাড় করছিলো। তখন সে বসে থাকতো এক কোনে। আস্তে আস্তে জানতে পারে তার বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এবার পাশে দাঁড়ায় বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। দিন-রাত এক করে মেহেদীর চিকিৎসার জন্য টাকা সংগ্রহ করে তারা। ঢাকায় অপারেশন করে টিউমার কেঁটে ফেলে দেয়া হয়।
উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় মুম্বাইয়ের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে।

সেখানে আবারও অপারেশন করা হয়। কিন্তু অপারেশন খরচ বাবদ প্রায় দেড় লক্ষ টাকা বাকি পড়ে যায় হাসপাতালে। অপারেশনের পরে হসপিটালের যাবতীয় ঔষুধ, রেপিও থেরাপি মিলিয়ে প্রয়োজন প্রায় ৭ লক্ষাধিক টাকা। আবারও মাঠে নেমেছে সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। মেহেদীর মুখে হাসি ফুটাতে দিন-রাত চলছে টাকা সংগ্রহ। পাশে এসে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশের বিভিন্ন সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন। এভাবেই মেহেদীর নামের সূর্যটা উদিত হবে।

মেহেদীর জন্য সাহায্য পাঠানোর ঠিকানাঃ ইয়াসির আরাফাত (বড় ভাই)। ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, অ্যাকাউন্ট নং : ২৭৩১০৫০৯০৩। ময়নামতি ব্রাঞ্চ, ক্যান্টনমেন্ট, কুমিল্লা। বিকাশঃ ০১৭৬৫৫৬৬৬১৬। রকেটঃ০১৭৬৫৫৬৬৬১৬২

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ