Skip to main content

নভেম্বর থেকে ফেসবুক মনিটর করতে সক্ষম হবে সরকার: মোস্তাফা জব্বার

ফাহিম ফয়সাল : ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, চলতি বছরের নভেম্বর থেকে ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম পর্যবেক্ষণ করতে সক্ষম হবে সরকার। ১২ অক্টোবর, শুক্রবার গাজীপুরের ছয়দানায় ফাইভ স্টার মোবাইল কারখানার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ আশা ব্যক্ত করেন। মন্ত্রী বলেন, প্রযুক্তিগত যে সক্ষমতা অর্জন করা দরকার, বাংলাদেশ এখন সেই জায়গায় পৌঁছতে সক্ষম হয়েছে। ফেসবুকের সঙ্গে আমাদের যে সম্পর্ক আছে, কোনো ফেক আইডি যদি থাকে, আমরা চিহ্নিত করতে পারি, সেটা যদি রিপোর্ট করা হয়, ফেসবুক আমাদের এটা সরিয়ে ফেলতে সহযোগিতা করে। আমরা আশা করছি নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ের ভেতরে আমাদের সক্ষমতা তৈরি হবে, যাতে আমরা ফেসবুকের সবটা মনিটর করতে পারি। দেশের মোবাইল কারখানা সম্পর্কে তিনি বলেন, আগে আমরা ইলেকট্রনিক্স শতভাগ আমদানি করতাম। এখন বাংলাদেশে ইলেক্ট্রনিক্সের যে বাজারে রয়েছে, তার ৭০ ভাগ আমার দেশের কোম্পানির দখলে এবং এই পণ্যগুলো বাংলাদেশে উৎপাদিত হয়। তিনি বলেন, বিদেশি যেসব পণ্য বা ব্র্যান্ড আছে, আমরা তাদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করব; আমাদের ব্র্যান্ড বিশ্বে নেতৃত্ব দেবে। আমরা দেশে সেই পরিস্থিতি বা অবস্থা তৈরি করেছি। সে জন্য আজ বিদেশিরা আমাদের দেশের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে। প্রতিযোগিতার জায়গাটা ইতোমধ্যে আমরা প্রতিষ্ঠিত করে দিয়েছি। এই দেশে এসে যে পণ্য বিক্রি করতে আসবে তাকে অন্ততপক্ষে সংযোজন করতে হবে এইটা আমরা নিশ্চিত করতে চাই। তিনি আরও বলেন আমাদের বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে, শিক্ষিত বেকারত্ব। দেশীয় এসব কোম্পানিসমূহে সাধারণ শিক্ষায় শিক্ষিতরা দক্ষতার সাথে কাজ করছে। গুণগত মানের দেশীয় কারখানায় উৎপাদিত মোবাইল কারখানা কর্মসংস্থানের পাশাপাশি, বৈদেশিক মুদ্রার সাশ্রয় হচ্ছে। সর্বোপরি মেড ইন বাংলাদেশ মোবাইল আমাদের জাতীয় গৌরবের বিষয়। দেশে মোবাইল কারখানা স্থাপন বা দেশীয় মোবাইল মেনুফেকচারিংয়ে সরকার অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে বলেও জানান মোস্তাফা জব্বার। অনুষ্ঠানে গাজীপুর সিটি মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম, বিটিআরসি চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক মহাসচিব মনিরুল হক, বিটিআরসি কমিশনার আমিনুল হাসান এবং ফাইভ স্টার কোম্পানির চেয়ারম্যান অলিউল্লাহ বক্তৃতা করেন।

অন্যান্য সংবাদ