প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌদি থেকে ১০ সহস্রাধিক শ্রমিক ফেরত আসার আশঙ্কা

সৗেরভ নূর : এ বছরের শেষ দিকে ১০ থেকে ১৫ হাজার শ্রমিক ফেরত আসতে পারে বলে মনে করছে শ্রম ও ইমিগ্রেন্ট বিষয়ক বিশেষজ্ঞরা।

কাজের কয়েকটি ক্যাটাগরি ভাগ করায় সৌদি শ্রমবাজারে এক ধরনের অস্থিরতা বিরাজ করছে। এই অস্থিরতার শিকার হচ্ছেন বাংলাদেশি শ্রমিকেরা। বিশেষ করে যারা ফ্রি ভিসায় গিয়েছিলেন তারাই বিপদে পড়ছেন। বৈধ কাগজপত্র থাকা সত্তেও নতুন নিয়মে অনেকেই অবৈধ হয়ে যাচ্ছেন। আটক করা হচ্ছে ঢালাওভাবে।

গত দুই সপ্তাহে ৬০০ বাংলাদেশি পুরুষ শ্রমিক দেশে ফিরেছেন অনেকটা শূন্য হাতে। অথচ এদের অনেকেরই বৈধ কাগজপত্র ছিল। দেশে ফিরে এসেছেন এমন কয়েকজন শ্রমিকের অভিযোগ, কোনো কারণ না দেখিয়েই তাদেরকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, সৌদি নাগরিকদের সুবিধা দেওয়ার জন্যই আচমকা ধর-পাকড় শুরু হয়েছে। সৌদি কর্তৃপক্ষ মহিলাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়ায় অনেকেই চাকরি হারাচ্ছেন। এ ব্যাপারে শ্রম ও ইমিগ্রেন্ট বিষয়ক বিশেষজ্ঞ হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, সৌদি সরকার এ বছর যে নতুন নিয়ম চালু করেছে তাতে শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষিত হচ্ছে না।

মাত্র ৪’শ, ৫’শ রিয়াল বেতনে গত দুই বছরে যে বিপুল পরিমাণ শ্রমিক সৌদি আরব পাড়ি জমিয়েছে তাদের অধিকাংশই ফ্রি ভিসায়। এই যে নিজের কাজ খুঁজে নেওয়ার বিষয়টা এক সময় সহজ ছিল কিন্তু কাজের গ-ি ছোট হয়ে আসায় এখন আর সে সুযোগ পাওয়া যাচ্ছে না। পর্যাপ্ত কর্মক্ষেত্র না থাকায় বৈধ্য কাগজ থাকা সত্তেও শূন্য হাতে ফিরে আসতে বাধ্য হচ্ছে।

অন্যদিকে কয়েক হাজার নারী শ্রমিক বিড়ম্বনার শিকার হয়ে ইতিমধ্যেই দেশে ফিরেছেন। – ভয়সে অফ আমরেকিা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ